নিজের জেলাতেই কর্মস্থল, সরস্বতী পুজোর মুখে শিক্ষকদের জন্য যুগান্তকারী ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির

এখন থেকে শিক্ষকদের কর্মস্থল হবে তাঁদের নিজস্ব জেলাতেই, সরস্বতী পুজোর আগে শিক্ষকদের প্রতি ‘শ্রদ্ধা’ জানিয়ে যুগান্তকারী ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।
মঙ্গলবার ১২ টা ৫৫ মিনিটে একটি দীর্ঘ ট্যুইটবার্তায় মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, সরস্বতী পুজোর আগে শিক্ষকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। এবার প্রত্যেক শিক্ষক তাঁর নিজের জেলাতেই কোনও স্কুলে শিক্ষকতা করতে পারবেন। তিনি নিজেই এই সিদ্ধান্তকে ‘ঐতিহাসিক’ বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি লিখেছেন, এর ফলে শিক্ষকেরা নিজেদের পরিবারের খেয়াল যেমন রাখতে পারবেন, তেমনি শিক্ষকতার কাজেও গভীরভাবে মনোনিবেশ করতে পারবেন।

পাশাপাশি তাঁর বার্তা, রাজ্যের প্রতিটি ছাত্র ও শিক্ষকের জন্য আমরা গর্ব অনুভব করি। শিক্ষকরা আমাদের আসল অভিভাবক। তাঁরাই জাতির মেরুদণ্ড। সমাজ ও দেশগঠনে তাঁদের বিশাল ভূমিকা। তাঁদের অসাধারণ কাজেই ভবিষ্যতের ‘আসল নেতা’ তৈরি হয়।
নিজের জেলার স্কুলে প্রত্যেক শিক্ষকের কর্মস্থল করার রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্ত যুগান্তকারী বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। এতে রাজ্য সরকারি ও সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত স্কুলের কয়েক লক্ষ শিক্ষক উপকৃত হবেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই ট্যুইটের প্রেক্ষিতে অনেক স্কুল শিক্ষক তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।
বাড়ি থেকে দূরের কোনও জেলায় শিক্ষকতার চাকরি নিয়ে বহু বছর ধরে কর্মরত থাকার পর বহু চেষ্টার পরেও বাড়ির কাছাকাছি বদলির আবেদন করেও এতদিন কোনও কাজ হয়নি। শিক্ষকদের এমন অভিযোগ বহু পুরনো। বিশেষ করে শিক্ষিকারা বাড়ি থেকে বহুদূরে কর্মস্থল হওয়ায় সবচেয়ে বেশি সমস্যার মুখোমুখি হতেন। অনেক কাঠখড় পুড়িয়েও অনেক সময় নিজের জেলাতে তাঁরা বদলি হতে পারেননি এমন অভিযোগও দীর্ঘদিনের। এই পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা শিক্ষক সমাজকে যে খুশি করবে, তা বলাই বাহুল্য।

Comments
Loading...