ভাইরাল ভিডিওয় পা নাচাচ্ছেন মমতা! ভাইরাল ভিডিও নিয়ে চাপানউতোর

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ভাঙা পা দোলাচ্ছেন! বিজেপি নেতার পোস্ট করা ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এই দৃশ্য। যা ঘিরে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। যদিও তৃণমূলের পক্ষ থেকে একে বিজেপির কুৎসিত প্রচার বলে দাবি করা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল থেকে ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাল ভিডিওটি। রাজ্য বিজেপির মুখপাত্র প্রণয় রায় এই ভিডিও পোস্ট করে দাবি করেন, আগেই বলেছিলাম এইসব মমতার নাটক। আর সেটা নিজেই প্রমাণ করে দিলেন। ভাঙ্গা পায়ে ব্যথার জন্য হুইল চেয়ার নিয়ে ঘুরছেন। আর সেই ভাঙ্গা পা দিব্যি দোলাচ্ছেন মমতা!

এমনকি তিনি এও অনুরোধ করেছেন, যাঁরা নিজেদের যোগ্যতায় পুলিশের চাকরি পেয়েছেন। তাঁদের হুইল চেয়ার ঠেলিয়ে কষ্ট দেবেন না। আমার পরিচিত অনেক বন্ধু পুলিশে চাকরি করে। খারাপ লাগে যখন দেখি শিক্ষিত হয়েও কেবলমাত্র চাকরি রক্ষার কারণে মুখ বুজে অপমান সহ্য করতে হয়। ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি TheBengalStory.

এ বিষয়ে বালিগঞ্জ কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মুখার্জি জানিয়েছেন, যতসব কুৎসিত প্রচার। মানুষ অমানবিক হলে এইসব প্রচার করে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি দলীয় কার্যালয়ে বসে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে কথা বলতে বলতে হঠাৎ আঘাত পাওয়া পায়ের ওপরে তুলে দেন আরেকটি পা। টেবিলের তলা দিয়ে কেউ এই ভিডিও করে তা ভাইরাল করে। সেখানে দেখা যায়, তিনি চোট পাওয়া বাঁ পা দোলাচ্ছেন। এই বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে সুব্রত মুখার্জি বলেন, যেটা শুনেছি, তাতে উনি যেখানে চোট পেয়েছেন, সেখানে অন্য পা রাখেননি। পা রেখেছেন অন্য জায়গায়।

কী বলছেন চিকিৎসক মহল?
ডাক্তাররা বলছেন, মুখ্যমন্ত্রীর হাড়ের চেয়েও বেশি চোট রয়েছে লিগামেন্টে। শুরুর ২১ দিন পা না নাড়াচাড়া করার পরামর্শ দেওয়া হয়। ২২ তম দিন থেকে ওই পা সামান্য নাড়াতে বলা হয়। তাতে লিগামেন্ট কত দ্রুত ঠিক হচ্ছে তা বোঝা যায়। পা এক ভাবে রাখার প্রয়োজন হয় কেবল মাত্র প্রথম ৩ সপ্তাহ। তারপর থেকে পা একটু একটু করে নাড়াচাড়া করার কথা বলেন ডাক্তাররা।

মুখ্যমন্ত্রীর পায়ে আদৌ আঘাত লাগেনি। মমতা নাটক করছেন। মোদী থেকে দিলীপ, শাহ থেকে শুভেন্দু, গেরুয়া ব্রিগেডের ছোট-বড় নেতারা প্রকাশ্যেই এই অবস্থান ধরে রেখেছেন। দিলীপ ঘোষের বারমুডা মন্তব্য ধিক্কৃত হয়েছে। কিন্তু বিজেপি নিজের অবস্থানেই অনড়।

মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিন নন্দীগ্রামের বিরুলিয়া বাজারে পায়ে আঘাত পেয়েছিলেন মমতা ব্যানার্জি। এরপর কলকাতার এসএসকেএম চিকিৎসা চলার পর তিনি প্রচারের কাজে ভাঙা পা নিয়েই বেড়িয়ে পড়েন। চোট পাওয়া বাঁ পায়ে প্লাস্টারে বেঁধে নিয়ে একের পর এক জনসভা করছেন তিনি।

Comments
Loading...