লক্ষ্য দৈনিক ১ লক্ষ করোনা পরীক্ষা, সুইডেন থেকে অত্যাধুনিক যন্ত্র কিনল রাজ্য সরকার

রাজ্যের লক্ষ্য পয়লা অগাস্টের আগে দৈনিক ১ লক্ষ করোনা পরীক্ষা চালু করা। তা কার্যকর করতে সুইৎজারল্যান্ড থেকে অত্যাধুনিক স্বয়ংক্রিয় করোনা পরীক্ষার যন্ত্র কিনল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। ভারতে সম্ভবত প্রথম রাজ্য হিসাবে এই যন্ত্র কিনল বাংলা। আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা বন্ধ। তাই জলপথে সুইডেন থেকে কলকাতা নিয়ে আসা হচ্ছে এই অত্যাধুনিক যন্ত্র।

রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক জানান, Cobas 6800 নামে এই যন্ত্রের বরাত দিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। জলপথে সেই যন্ত্র খুব তাড়াতাড়ি এসে পৌঁছবে কলকাতায়। এই যন্ত্রের সাহায্যে দিনে ১ লক্ষ করোনা পরীক্ষা করা যাবে বলে জানান স্বাস্থ্য দফতরের ওই আধিকারিক। এখন প্রতিদিন গড়ে ১০ হাজার করোনা পরীক্ষা হয় বাংলায়। সে জায়গায় এই যন্ত্রের সাহায্যে রাজ্যে করোনা পরীক্ষার সংখ্যা এক লাফে কয়েকগুণ বেড়ে যাবে। পাশাপাশি করোনা পরীক্ষার খরচও কমবে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ, এখন প্রতিদিন করোনা পরীক্ষা করানোর জন্য রাজ্য সরকারের ২ থেকে ২.৫ কোটি টাকা খরচ হচ্ছে। Cobas 6800 চালু হলে সেই খরচ এক ধাক্কায় অনেকটা কমে যাবে।

জানা গিয়েছে, প্রথমে কলকাতা ও উত্তরবঙ্গের করোনা প্রভাবিত এলাকার হাসপাতালগুলিতে রাখা হবে এই যন্ত্র। এই অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যবহারের জন্য টেকনিশিয়ানদের প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু হয়েছে কলকাতার স্কুল অফ ট্রপিক্যাল মেডিসিনে। ইতিমধ্যে স্বাস্থ্য দফতর ও নাইসেডের বেশ কয়েকজন টেকনিশিয়ানের এই প্রশিক্ষণ হয়েছে বলে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর।

RT-PCR পদ্ধতিতে করোনার পরীক্ষা করে Cobas-এর এই যন্ত্র। এই মেশিন রোবটিক পদ্ধতিতে পরিচালিত হওয়ায় নমুনা পরীক্ষা করতে গিয়ে সংক্রমণের আশঙ্কা নেই। মেশিনটি তৈরি করেছে রোচে ডায়গনস্টিকস। এর মাধ্যমে ভাইরাল লোড আইভিডি পর্যবেক্ষণ, ব্লাড স্ক্রিনিং, মাইক্রোবায়োলজি পরীক্ষা করা সম্ভব। এটি চার ঘণ্টার শিফটে ৩৮৪টি করে নমুনা পরীক্ষা করতে পারে।

Comments
Loading...