কোকাকোলার বোতলে বাংলা, উদ্যোগে সাফল্য মিললে ভারতের বাকি ভাষাতেও

কোকাকোলা, স্প্রাইট, থামস আপ, ফান্টা, মাজা, লিমকা, মিনিট মেড ইত্যদি কোকাকোলার সমস্ত বোতলের গায়ে পণ্যের নাম থাকবে বাংলায়।
২১ শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে বাংলার মানুষের সঙ্গে আত্মিক সম্পর্ক দৃঢ় করতে একটি প্রচারমূলক অনুষ্ঠান করেছিল কোকাকোলা। তা যথেষ্ট সফল হওয়ার পর এ রাজ্যে বাজার সম্প্রসারণের জন্য বাংলা ভাষাকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে তারা। বাঙালি খাওয়া-দাওয়া, আড্ডায় বহু বছর ধরেই এই ঠান্ডা পানীয় সঙ্গ দিয়েছে। সেই আবেগকে আরও জোরদার করতে কোকাকোলার সমস্ত পানীয় বোতলের লেবেলে লেখা থাকছে বাংলা ভাষায়। কোকাকোলার এই উদ্যোগের সঙ্গ দিয়েছে বাংলার আর এক আবেগে কেকেআর। আইপিএল দল কলকাতা নাইট রাইডার্সের সঙ্গে অংশীদারত্বে যাচ্ছে কোকাকোলা। গত বুধবার কলকাতার এক পাঁচতারা হোটেলে ছিল তারই আনুষ্ঠানিক প্রচার। সাংবাদিক বৈঠকে দক্ষিণ পশ্চিম এশিয়া তথা কোকাকোলা ইন্ডিয়ার সভাপতি টি কৃষ্ণকুমার বলেন, কলকাতায় পরীক্ষামূলকভাবে এই উদ্যোগ নিলাম আমরা। আঞ্চলিক ভাষার উপর জোর দিয়ে তাই কোকাকোলার সমস্ত পানীয়ের গায়েই বাংলায় লেখা থাকবে পণ্যের নাম। আগামী দিনে দেশের সব রাজ্যেই আঞ্চলিক ভাষায় লেখা থাকবে তাঁদের পণ্যের নাম, জানান টি কৃষ্ণকুমার।
তবে বাংলার হৃদয় জিততে ২০১৮ সালে বাংলাদেশে কোকাকোলা তাদের বোতলের লেবেলে বাংলার মোট ২১ টি শব্দ ব্যবহার করেছিল। হারিয়ে যাওয়া কিছু বাংলা শব্দ, যেমন ‘অবিমিশ্র’, ‘পয়মন্ত’, ‘বিপ্রতীপ’ ইত্যাদি শব্দের সঙ্গে নতুন প্রজন্মকে পরিচয় করিয়ে দিতে এরকম ২১ টি শব্দ ব্যবহার করেছিল কোকাকোলা। সে বছরও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে সম্মান জানিয়ে বোতলের গায়ে লেখা হয়েছিল বাংলা শব্দ। তবে বিতর্কও হয়েছিল। কয়েকটি বাংলা বানান ভুল লেখা এবং বিকৃত শব্দকে বাংলা বলে চালানোর অভিযোগে বাংলাদেশ আদালতে মামলাও গড়ায় কোকাকোলার বিরুদ্ধে। এবার এমন কোনও বিতর্ক হবে না বলে আশাবাদী কোকাকোলা ইন্ডিয়া।

Comments
Loading...