Corona: কীভাবে এই মারণ ভাইরাস চিন থেকে ছড়িয়ে পড়ল গোটা দুনিয়ায়? দেখে নিন টাইমলাইন

মানব সভ্যতা থমকে দাঁড়িয়ে এক অভূতপূর্ব তাণ্ডবের সামনে। গোটা দুনিয়া কার্যত ঘরবন্দি। মারণ ভাইরাসের থাবায় লন্ডভণ্ড বিশ্ব অর্থনীতি। কিন্তু চিনের একটি প্রদেশ থেকে কীভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ল বিশ্বের কোণে কোণে? মারণ ভাইরাসের দুনিয়া দর্শনের একটি যাত্রাপথ খোঁজার চেষ্টা করেছি আমরা।

২২ জানুয়ারি, ২০২০
চিন ছাড়িয়ে এবার ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ল থাইল্যান্ড, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া এবং আমেরিকায়। সেদিনই রিপোর্ট হয়েছে এমন কেসের সংখ্যা ৫৫৫, মোট কেসের সংখ্যাও ৫৫৫।

২৬ জানুয়ারি, ২০২০
অস্ট্রেলিয়া, কানাডা থেকেও নতুন করোনা আক্রান্তের হদিশ। সেদিন করোনা পজিটিভি ধরা পড়েছে ৬৮৪ জনের। মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২,১১৮।

৩১ জানুয়ারি, ২০২০
ইতালি, রাশিয়া, ইংল্যান্ড ও সুইডেনে করোনা আক্রান্তের হদিশ। ১,৬৯৩ জনের করোনা পজিটিভি ধরা পড়েছে সেইদিন। মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯,৯২৭।

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
ইরানে এক ব্যক্তির দেহে ধরা পড়ল করোনাভাইরাস। শুধুমাত্র সেদিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৫০৩। মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ৭৫,৬৩৯।

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
পাকিস্তান, ব্রাজিল, জর্জিয়া, গ্রিস, উত্তর ম্যাসিডোনিয়া, নরওয়ে ও রোমানিয়ায় করোনা আক্রান্তের হদিশ। সেদিন করোনা পজিটিভ বেরিয়েছে ৯৮২ জনের। মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮১,৩৯৫।

৩ মার্চ, ২০২০
আর্জেন্টিনা, চিলে, জর্ডান, ইউক্রেনে করোনা আক্রান্ত পাওয়া গেল। দৈনিক ২,৫৩৪ জনের রিপোর্ট পজিটিভ। মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হল ৯২,৮৪০ জন।

৯ মার্চ, ২০২০
আলবেনিয়া, সাইপ্রাস, ব্রুনেই থেকে করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলল। দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩,৭৬৬ জন। সারা পৃথিবীতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১,১৩, ৫৬১ জন।

১৩ মার্চ, ২০২০
কাজাখস্থান, ইথিওপিয়া, সুদান, কেনিয়া, অ্যান্টিগা, বার্বাডোজে করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলল। দৈনিক করোনা পজিটিভের সংখ্যা ১৬,৮৫০। দুনিয়ায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ১,৪৫,১৯৩।

২২ মার্চ, ২০২০
ডমিনিকা রিপাবলিক, গ্রানাদা, মোজাম্বিক এবং সিরিয়া থেকে করোনা আক্রান্তের রিপোর্ট পজিটিভ। দৈনিক করোনা পজিটিভের সংখ্যা ৩১,৪৩১। মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩,৩৫,৯৫৫।

এভাবেই চিনের একটি প্রদেশ থেকে বেরিয়ে আলোর গতিতে কার্যত সারা দুনিয়া ঘুরে ফেলেছে মারণ করোনাভাইরাস। এই ভাইরাস চিনে প্রথম দেখা গেলেও, এর তাণ্ডবলীলায় চিনকে টপকে গিয়েছে ইউরোপের স্পেন, ইতালি। হাহাকার পড়ে গিয়েছে আমেরিকাতেও। এই পরিস্থিতিতে কার্যত প্রমাদ গুনছে বিশ্বের জনবহুল এবং সবচেয়ে বড় গণতন্ত্র, ভারত। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ভারত কী করে, এখন তার দিকেই তাকিয়ে বিশ্ব।

 

Comments
Loading...