Coronavirus Latest News: ইউরোপ ও আমেরিকায় নতুন করে ছড়াচ্ছে মারণ রোগ, গোটা বিশ্বে মৃত্যু ছাড়াল ৪ হাজার

চিন থেকে ছড়ানো করোনাভাইরাসে এখন বিশ্বজুড়ে প্রবল আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। বিশেষ করে ইউরোপ ও আমেরিকায় নতুন করে কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়ায় মৃতের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে চার হাজারের বেশি মৃত্যু হয়েছে, প্রায় ১১ লক্ষ মানুষের দেহে করোনাভাইরাস মিলেছে।

আমেরিকায় করোনার শিকার এক হাজার!
আমেরিকার ২৮ টি প্রদেশে এক হাজার মানুষের দেহে করোনা ভাইরাস মিলেছে। মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের। মিশিগানের মতো কয়েকটি স্টেটে করোনাভাইরাসের জেরে জরুরি অবস্থা ঘোষণা হয়েছে। নিউ ইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো জানিয়েছেন, দেশের এই অভূতপূর্ব সমস্যা মোকাবিলায় বিশেষ প্রতিনিধিদলের হাতে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

ব্রিটেন
গ্রেট ব্রিটেনেও করোনা আতঙ্ক তীব্র হয়েছে। মঙ্গলবারই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪ থেকে ৩৮৩ তে পোঁছে গিয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ছয়জনের। খোদ ব্রিটেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাদিন ডরিস করোনাভাইরাস সংক্রমণের শিকার হয়ে আইসোলেশনে রয়েছেন। গত সপ্তাহে প্রচুর সাধারণ মানুষের সংস্পর্শে এসেছিলেন নাদিন। সেখান থেকেই মারণ ভাইরাস ছড়িয়েছে বলে অনুমান। একই কারণে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন,  অর্থমন্ত্রী কেরি সাইমন্ডসের শারীরিক অবস্থার দিকে খেয়াল রাখছেন চিকিৎসকেরা।

আর্সেনাল ফুটবল ক্লাবে করোনার আতঙ্ক
আর্সেনালের কয়েকজন ফুটবলার করোনার শিকার হয়ে আইসোলেশনে রয়েছেন। ম্যাঞ্চেস্টার সিটির সঙ্গে তাদের পরবর্তী ফুটবল ম্যাচও মুলতুবি রাখা হয়েছে। গ্রিক ক্লাব অলিম্পিয়াকসের চেয়ারম্যানের সঙ্গে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি দেখা করেছিলেন আর্সেনাল ফুটবল টিমের কয়েকজন খেলোয়াড়। তাঁর শরীরেও করোনাভাইরাস পজিটিভ বলে ঘোষণা করেছেন চিকিৎসকরা।

অস্ট্রেলিয়ায় স্বাস্থ্যখাতে বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা
করোনা সংক্রমণ ও আতঙ্কের মধ্যে অস্ট্রেলিয়া সরকার ২.৪ বিলিয়ন ডলারের স্বাস্থ্য প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। চলছে করোনাভাইরাস রুখতে সচেতনতা প্রচার, টেলিহেলথ ফেসিলিটি এবং হাসপাতালগুলিতে করোনাভাইরাসে সংক্রামিত রোগীদের চিকিৎসার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ইতালিতে করোনাভাইরাস
মাত্র কয়েক দিনেই ইতালিতে মহামারির আকার নিয়েছে করোনাভাইরাস। সেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার। আক্রান্তের প্রায় ১০ হাজার মানুষ।

দক্ষিণ কোরিয়া  ও জাপানে করোনার ছোবল
দক্ষিণ কোরিয়ায় চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞরা যখন আশা করছেন মারণ ভাইরাসের সংক্রমন স্তিমিত হয়ে আসছে, তখন বুধবার নতুন করে ২৪২ জনের দেহে করোনাভাইরাস পাওয়া গিয়েছে। বুধবার জাপানে মোট ৫৯ টি করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়া গিয়েছে। যা করোনা ছড়ানোর পর এখনও পর্যন্ত জাপানে একদিনে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক সংক্রমণের খবর বলে দাবি করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলি।
জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটি সেন্টার ফর সিস্টেমস সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং একটি রিপোর্টে দাবি করেছে, এখনও বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা চার হাজারেরও বেশি। আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লক্ষ ৬৬ হাজার ৫৫৮ জন। চিনে তিন হাজার, ইরানে ৩৫৪ জন, স্পেনে ৪৭ জন, ফ্রান্সে ৩৩ জন, জার্মানিতে দু’জন, সুইজারল্যান্ডে তিনজন, নেদারল্যান্ডে চারজন, মালয়েশিয়ায় ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনাভাইরাসে। এ ছাড়া বহু দেশে বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃতের সংখ্যা।

Comments
Loading...