রাজ্যে কংগ্রেসের সঙ্গে আলিমুদ্দিনের আসন সমঝোতায় ছাড়পত্র, লিখিত বিবৃতি দিয়ে জানাল সিপিএম কেন্দ্রীয় কমিটি

অবশেষে সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটি লিখিত বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দিল পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেসের সঙ্গে আসন সমঝোতার কথা। দিল্লিতে দু’দিনের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের পর সোমবার লিখিত বিবৃতিতে সিপিএম কেন্দ্রীয় কমিটি জানাল, পশ্চিমবঙ্গে যে ৬ টি আসনে সিপিএম এবং কংগ্রেসের সাংসদ রয়েছেন (রায়গঞ্জ, মালদহ উত্তর এবং দক্ষিণ, জঙ্গিপুর, বহরমপুর এবং মুর্শিদাবাদ) সেখানে এই দুই দল কেউ কারও বিরুদ্ধে প্রার্থী দেবে না। বাকি আসনগুলিতে কী নির্বাচনী কৌশল নেওয়া হবে তা আগামী ৮ ই মার্চ রাজ্য বামফ্রন্টের বৈঠকে চূড়ান্ত হবে। এর পাশাপাশি, বিজেপিকে হারানো, সিপিএম সহ বামেদের শক্তিবৃদ্ধি এবং ধর্মনিরপেক্ষ সরকার গঠনের স্লোগানকে সামনে রেখেই লোকসভার নির্বাচনী কৌশল ঘোষণা করেছে সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটি।
পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি তামিলনাড়ু, মহারাষ্ট্র, বিহার এবং ওড়িশার নির্বাচনী কৌশলও কেন্দ্রীয় কমিটির লিখিত বিবৃতিতে জানিয়েছে সিপিএম। সিপিএম জানিয়েছে, তামিলনাড়ুতে ডিএমকে, মহারাষ্ট্রে এনসিপি এবং বিহারে আরজেডির সঙ্গে আসন সমঝোতা নিয়ে কথা চলছে। ওড়িশাতেও প্রার্থী দেবে সিপিএম।

কয়েক সপ্তাহ আগেই রাজ্য সিপিএম চূড়ান্ত করেছিল কংগ্রেসের সঙ্গে আসন সমঝোতার ব্যাপারে। রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীতে তা চূড়ান্ত হওয়ার পর গত ২৮ শে ফেব্রুয়ারি রাজ্য কমিটির মিটিংয়েও প্রায় বিনা বাধায় আসন সমঝোতার প্রস্তাব পাশ হয়ে যায়। যদিও বর্ধমান, কলকাতা, হাওড়া এবং উত্তর দিনাজপুরের জেলা সম্পাদকরা আসন সমঝোতার বিরোধিতা করেছিলেন। এবার সূর্যকান্ত মিশ্রদের আসন সমঝোতার প্রস্তাব পাশ হয়ে গেল দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে। কেন্দ্রীয় কমিটি লিখিত বিবৃতিতে জানিয়ে দিল জেতা আসনগুলিতে সিপিএম এবং কংগ্রেস কেউ কারও বিরুদ্ধে প্রার্থী দেবে না। বাকি আসনগুলিতে লড়াইয়ের ফর্মুলা রাজ্য বামফ্রন্টে চূড়ান্ত হবে। ইতিমধ্যেই বিমান বসু বামফ্রন্ট নেতাদের জানিয়ে দিয়েছেন, সিপিএম ২২ টি, আরএসপি, ফরওয়ার্ড ব্লক, সিপিআই ৩ টি করে এবং সিপিআইএমএল (লিবারেশন) কে ১ টি আসন ছেড়ে ১০ টি আসন কংগ্রেসের জন্য ছাড়া হবে।

Comments
Loading...