ইলেক্টোরাল বন্ড বাতিল থেকে শীর্ষ পদে আরএসএসের লোককে সরানোর দাবি সিপিএমের নির্বাচনী ইশতেহারে

লোকসভা নির্বাচনের ইশতেহার প্রকাশ করল সিপিএম। ইশতেহারে শ্রমিক-কৃষকদের স্বার্থে বিভিন্ন দাবি-দাওয়া স্থান পেয়েছে। ম্যানিফেস্টোতে উঠে এসেছে ইলেক্টোরাল বন্ড বাতিলের দাবি।
রাজস্থান, মধ্য প্রদেশ ও ছত্তিসগঢ়ে বিধানসভা ভোট চলাকালীন সিপিএমের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ কারাট জানিয়েছিলেন, সিপিএমকে ইলেকটোরাল বন্ডের মাধ্যমে টাকা দিতে চেয়েছিল দুটি বড় সংস্থা। কিন্তু সেই টাকা নিতে অস্বীকার করেছিল সিপিএম। সেদিন কারাট বলেছিলেন, নির্বাচনী বন্ডের মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলিকে টাকা দেওয়া আসলে ঘুরিয়ে দুর্নীতির আশ্রয় নেওয়া। সিপিএমের অভিযোগ, বিভিন্ন সংস্থা নির্বাচনী বন্ডের মাধ্যমে কোনও রাজনৈতিক দলকে অর্থ সাহায্য করে কালো টাকাকে সাদা করার পথ নিচ্ছে। সিপিএম শুরু থেকেই নির্বাচনী বন্ডের বিরুদ্ধে।
এছাড়াও ইশতেহারে স্থান পেয়েছে দেশের বিভিন্ন সংস্থার উচ্চপদ থেকে আরএসএসের কর্মীদের অপসারণ এবং স্কুলের পাঠ্যপুস্তক থেকে সাম্প্রদায়িক বিষয়বস্তুর অপসারণের দাবি। সম্প্রতি রাফাল চুক্তি নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। এই প্রেক্ষিতে ইশতেহারে সিপিএমের দাবি, আন্তর্জাতিক চুক্তির ক্ষেত্রে সংসদীয় অনুমোদন বাধ্যতামূলক করতে হবে। পাশাপাশি, ইশতেহারে স্থান পেয়েছে আফস্পা এবং এনএসএ বাতিলের দাবিও।

Comments
Loading...