৪ মার্চ প্রার্থী তালিকা ঘোষণা বামেদের, জেলা থেকে রিপোর্ট চাইল আলিমুদ্দিন

ফেব্রুয়ারির শেষ রবিবার ব্রিগেড সমাবেশ করবে বাম-কংগ্রেস-আইএসএফ। জোটের আসন সমঝোতাও শেষ পর্যায়ে। সিপিএম-কংগ্রেস সমঝোতা শেষ। আইএসএফ-সিপিএম আসন ভাগাভাগিও সেরে ফেলা হয়েছে। এখন বাকি কেবল আব্বাসের দলের সঙ্গে কংগ্রেসের আসন বণ্টন। জোটের সিনিয়ার নেতারা মনে করছেন, আসন সমঝোতা প্রায় চূড়ান্ত। আর ক’দিনের মধ্যেই ঘোষণা হবে। 

এই অবস্থায় প্রার্থীদের নাম পাঠাতে প্রতি জেলায় নির্দেশ পাঠিয়েছে আলিমুদ্দিন। সূত্রের খবর, ৪ মার্চ, বৃহস্পতিবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হতে পারে মুজফফর আহমেদ ভবন থেকে। 

ব্রিগেড থেকেই বিধানসভা ভোটের প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়বে বামেরা। তবে শুধু প্রচারই নয়, সিপিএম প্রার্থী তালিকাও প্রকাশ করে দিতে চায়। আগেই জানা গিয়েছিল, এবার সিপিএমের প্রার্থী তালিকায় অগ্রাধিকার পাবেন ৪০ বছরের কম বয়সীরা। ফলে ঐশী, দিপ্সীতা, ময়ূখ, দেবজ্যোতি দাসেরা প্রথমবার প্রার্থী হচ্ছেন।  পাশাপাশি জানা গিয়েছিল, মহম্মদ সেলিমকে মুখ করে ভোটে যাচ্ছে বামেরা। সেলিম নিজে হুগলি জেলার কোনও একটি আসন থেকে লড়বেন। এছাড়া সিপিএমের যে সব জয়ী প্রার্থী এখনও দলে আছেন, যেমন অশোক ভট্টাচার্য, সুজন চক্রবর্তী, মানস মুখার্জি, আমজাদ হোসেন, তন্ময় ভট্টাচার্যরা সবাই টিকিট পাচ্ছেন। রানিবাধ থেকে লড়বেন সুশান্ত ঘোষ। চমক হিসেবে টালিগঞ্জ কেন্দ্র থেকে সিপিএমের টিকিটে লড়বেন অভিনেতা দেবদূত ঘোষ। 

কিছু আসনের প্রার্থী ঠিক হলেও বেশিরভাগ আসন এখনও বাকি। সেই আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী কারা হতে পারেন, তা জানতে প্রতিটি জেলায় বার্তা পাঠিয়েছে আলিমুদ্দিন। চেয়ে পাঠানো হয়েছে নামের তালিকা। সেই তালিকা থেকে ফাইনাল তালিকা তৈরি হবে আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে। 

সূত্রের খবর, জেলা থেকে পাঠানো তালিকা সোমবার থেকেই আসতে শুরু করে দেবে। সেই তালিকা থেকে নাম বেছে নেবেন সিপিএম নেতারা। বুধবারের মধ্যে গোটা তালিকা চূড়ান্ত করে ফেলা হবে। বৃহস্পতিবার বামেদের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা।

Comments
Loading...