সেলিম: পুজো-পার্বণ ক্যালেন্ডার দেখে হয় জানি, এখন দেখছি CBI-ED’র তদন্তও ভোটের ক্যালেন্ডার দেখে হচ্ছে!

দু’বছরে আপনাদের ১৮ জন সাংসদ কী কাজ করলো তার খতিয়ান দেখিয়ে ভোট চাওয়ার হিম্মত আছে? প্রশ্ন সেলিমের

সিপিএমের পলিটব্যুরোর সদস্য মহম্মদ সেলিম সাংবাদিক বৈঠক করে বিজেপি এবং তৃণমূলেকে একযোগে বিঁধলেন। সোমবার ডানলপের সভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন পানীয় জল প্রকল্পের জন্য রাজ্যে টাকা পাঠালেও সে টাকার বেশির ভাগই তৃণমূল আত্মসাৎ করছে। এদিন মোদীর অভিযোগের জবাবে সেলিম বলেন, তাহলে প্রধানমন্ত্রীও এই দুর্নীতির জন্য একইভাবে দায়ী। ওঁর দফতর তদন্ত করে না কেন? প্রাক্তন সাংসদের অভিযোগ, সরকারি টাকায় প্রধানমন্ত্রী দলের হয়ে প্রচার করছেন।

অভিষেক ব্যানার্জির স্ত্রীকে সিবিআই-এর নোটিস প্রসঙ্গে সেলিমের কটাক্ষ ওটা নোটিস নয় বিজেপিতে আসার আমন্ত্রণ পত্র। মোদী জনসভা থেকে বলেছিলেন বাংলায় সিন্ডিকেট রাজ্ চলছে। সেলিম উত্তরে বলেন তৃণমূলের যে নেতা প্রথম সিন্ডিকেট এর কথা প্রকাশ্যে স্বীকার করেন সেই নেতা তো এখন বিজেপিতে! পাশাপাশি সিপিএম নেতার তোপ বিজেপির চেয়ে বড় সিন্ডিকেট দুনিয়ায় নেই।

[আরও পড়ুন-  আদি বিজেপির নামে দেওয়াল দখল, আলাদা প্রতীকে লড়াই! বর্ধমানে প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব]

সেলিম সিবিআই, ইডির তদন্তকে কটাক্ষ করে বলেন পুজো-পার্বণ ক্যালেন্ডার দেখে হয় জানি, এখন তো দেখছি সিবিআই-ইডির তদন্তও ভোটের ক্যালেন্ডার দেখে হচ্ছে!
রাজ্য থেকে নির্বাচিত বিজেপি সাংসদের কটাক্ষ করে সেলিম বলেন, দু’বছরে আপনাদের ১৮ জন সাংসদ কী কাজ করলো তার খতিয়ান দেখিয়ে ভোট চাওয়ার হিম্মত আছে? প্রধানমন্ত্রীর দক্ষিনেশ্বর নোয়াপাড়া মেট্রোর উদ্বোধন প্রসঙ্গে সেলিম বলেন, এত বছরে কেন্দ্র বাংলায় একটাও নতুন প্রকল্পের সূচনা করেন নি, খালি বড়ো বড়ো ভাষণ দিয়েছেন মোদী। সিপিএমের প্রাক্তন সাংসদের দাবি, পরিবর্তনের নাম যে ধাপ্পাবাজি হয়েছে বাংলার মানুষ তা থেকে মুক্তি চান।

Comments
Loading...