পতাকা বাঁধছেন নিজেই, শিলিগুড়িতে প্রচার শুরু CPM’এর অশোকের

সিপিএম বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে শিলিগুড়ি ঢেকেছে লাল ঝাণ্ডায়

১৯৯১ থেকে ২০০৬, টানা চারবার শিলিগুড়ির বিধায়ক ছিলেন তিনি। ২০১১ সালে তৃণমূলের দখলে ওই বিধানসভা আসন গেলেও ২০১৬ সালে তা ফের পুনরুদ্ধার করেন সিপিএমের অশোক ভট্টাচার্য। রাজ্যজুড়ে যখন বামেদের ভরাডুবি, তখন ২০১৬ সালে লাল ঝাণ্ডা উড়িয়ে শিলিগুড়ি আসন অক্ষত রেখেছিলেন অশোকবাবু। দুয়ারে আর একটা বিধানসভা ভোট। এই প্রেক্ষিতে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী, বিদায়ী বাম বিধায়ক তথা শিলিগুড়ি পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যান অশোক ভট্টাচার্য নিজেই শুরু করলেন লাল ঝাণ্ডা লাগানোর কাজ। ফেসবুকে সেই পতাকা লাগানোর ছবি তুলে ধরেছেন অশোকবাবু নিজেই। ক্যাপশনে লিখেছেন, ”বেশ অনেক বছর পরেই পতাকা লাগানোর কাজ করলাম। সারা শহরে আমাদের হাজার হাজার কর্মী শহরকে পরিচিত লাল পতাকায় ঢাকার কর্মসূচি নিয়েছে।”

২০১৫ সালে কর্পোরেশন ভোট, তারপর মহকুমা পরিষদ, প্রতিরোধের পথে তৃণমূলকে দু-দু’বার রুখে দিয়ে গোটা শিলিগুড়ির জন্য আলাদা সম্ভ্রম আদায় করে নেন অশোক ভট্টাচার্য। অশোকবাবুদের সেই লড়াইয়ের সুবাদে রাজ্য রাজনীতিতে চালু কথা হয় ‘শিলিগুড়ি মডেল’। তিনি ‘সিপিএমের অশোক স্তম্ভ’।
২০২১ সাল, এবার রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছে ঘাসফুল আর পদ্মের লড়াই। চলছে শিবির বদলের পালা। বাংলা দখলে পাখির চোখ রেখে আসছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি-সহ শীর্ষ নেতৃত্ব। অন্যদিকে এক জেলা থেকে অন্য জেলা চষে বেড়াচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল মেত্রী মমতা ব্যানার্জি। তখন শিলিগুড়ি থেকে তৃণমূল ও বিজেপিকে প্রতিরোধের গুরু দায়িত্ব ফের অশোকবাবুর কাঁধে।

শিলিগুড়ি বিধানসভা আসনটি বর্তমানে সিপিএমের দখলে থাকলেও ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে এই কেন্দ্রে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। দু’ নম্বরে রয়েছে তৃণমূল। আর তৃতীয় স্থানে বামেরা। এই প্রেক্ষিতে প্রচারে খামতি রাখছেন না অশোক ভট্টাচার্য। সারা শিলিগুড়ি এখন ঢেকে গিয়েছে লাল ঝাণ্ডায়। পুরসভার ৩৩টি ওয়ার্ড নিয়ে শিলিগুড়ি বিধানসভা। সেই ৩৩টি ওয়ার্ডের ২৫০টি বুথে লাল পতাকা দিয়ে ঢেকে দিয়েছেন অশোক ভট্টাচার্যরা।পাশাপাশি শিলিগুড়ির বিধায়কের নেতৃত্বে শুরু হয়েছে বামেদের জনসংযোগ যাত্রা শুরু করেছে বামেরা। পাশাপাশি ২০১৬ সালে শিলিগুড়ি বিধানসভায় যে তৃণমূল প্রার্থী বাইচুং ভুটিয়াকে ১৫ হাজার ভোটে হারিয়েছিলেন অশোক ভট্টাচার্য, ‘২১ এর ভোটে সেই তাঁর হয়ে প্রচারে আসবেন বাইচুং! বাইচুং নিজেই এই ইচ্ছে জানিয়েছেন বলে  সিপিএম সূত্রে খবর।

মঙ্গলবার এক ফেসবুক পোস্টে অশোকবাবু তৃণমূল মন্ত্রী গৌতম দেবকে নিশানা করে তাঁর কটাক্ষ, ভোটের সময় যে মন্ত্রী বিশেষ সক্রিয় হয়ে উঠেছেন, গত পাঁচ বছরে শিলিগুড়ির প্রতি সমস্ত বঞ্চনা ও বৈষম্যের নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনিই।

Comments
Loading...