সূর্যকান্ত মিশ্র: সরকারে এলে ১ বছরে শূন্যপদ পূরণ, কর্মহীনদের কাজ দিতে খোলা হবে সমস্ত ছোট-মাঝারি কারখানা

বিজেপিকে কেলেঙ্কারির দল বলে অভিহিত করেন সূর্যকান্ত

বাংলায় তৃণমূল বা বিজেপি, কেউ সরকার গড়তে পারবে না। ওদের এমন অবস্থা করুন যেন একসঙ্গে জোট বেঁধেও সরকার গড়তে না পারে তৃণমূল-বিজেপি। 

জামালপুরে ব্রিগেড প্রস্তুতির সভায় একথা বলেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। পাশাপাশি সূর্য মিশ্রর দাবি, তৃণমূল-বিজেপি সরকার গড়তে ব্যর্থ হবে, বাম-কংগ্রেস জোট সরকার মানুষের সরকার গড়বে। 

২৮ ফেব্রুয়ারি ব্রিগেড সমাবেশ উপলক্ষ্যে গ্রাম বাংলায় প্রস্তুতি সভা করছে বামেরা। পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরেও তেমনই সভার আয়োজন করেছিল সিপিএম। সেখানেই বক্তৃতা করেন সূর্য মিশ্র। একযোগে আক্রমণ শানান তৃণমূল-বিজেপির দিকে। সূর্যকান্ত মিশ্রর আক্রমণ থেকে বাদ যায়নি আসাদুদ্দিন ওয়েইসির এআইএমআইএম। মিমকে বিজেপির বি টিম হিসেবে উল্লেখ করে সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক বলেন, বামপন্থীরা সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে কোনোদিন আপস করেনি। 

এদিন জামালপুরের ভিড়ে ঠাঁসা নেতাজি ময়দানে সূর্য মিশ্র প্রশ্ন করেন, জাতির জনক বলা হয় যাঁকে, সেই মহাত্মা গান্ধীকে গুলি করে যারা হত্যা করেছে, আপনি কি তাদের সঙ্গে যাবেন? খুনি নাথুরামের মূর্তি বানাচ্ছে বিজেপি। আপনার পক্ষে তাদের সঙ্গে যাওয়া সম্ভব? বিজেপিকে কেলেঙ্কারির দল বলেও অভিহিত করেন সূর্যকান্ত। 

বাম-কংগ্রেসের জোট সরকার গঠন হলে কী কী করা হবে তাও মঞ্চ থেকে জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী। তাঁর কথায়, আমরা ফিরলেই আবার বছর বছর এসএসসি, টেট হওয়া শুরু করবে, ইনকাম ট্যাক্স দেন না এমন সবাই ফ্রিতে চাল পাবেন, রাজ্যে যা শূন্যপদ ১ বছরের মধ্যে তা পূরণ হয়ে যাবে, ছোট-মাঝারি কল কারখানা সব খুলে দেওয়া হবে। তাতে কাজ ফিরে পাবেন বহু কর্মী। জানান সূর্যকান্ত মিশ্র। 

উপস্থিত বাম কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে সূর্য মিশ্রের পরামর্শ, মানুষের কাছে যান, তাদের সঙ্গে মনের যোগাযোগ স্থাপন করুন। তাদের কথা শুনুন, যে ভাষা বোঝেন সেই ভাষায় বোঝান। তাদের বলুন, আসুন সবাই মিলে দুর্নীতিগ্রস্ত বিজেপি ও তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলি।

Comments
Loading...