বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইকের নামে ভোট চেয়ে বিধি ভেঙেছেন মোদী, কমিশনকে ফের চিঠি সিপিএমের

মহারাষ্ট্রের লাতুরের নির্বাচনী জনসভা থেকে প্রথম ভোটারদের কাছে বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইক চালানো সেনার নাম করে সরাসরি ভোট ভিক্ষা করেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। এবার তা নিয়েই নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানালো সিপিএম। নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক সুনীল অরোরাকে চিঠি দিলেন সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য নীলোৎপল বসু।

মঙ্গলবার মহারাষ্ট্রের লাতুরে জনসভা করেন নরেন্দ্র মোদী। সেখানেই প্রথমবার ভোট দেবেন এমন মানুষদের উদ্দেশ্য করে নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘আপনাদের প্রথম ভোট কি বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইক চালানো সেনাকে উৎসর্গ করবেন না?’ মোদীর এই মন্তব্যেই নির্বাচনী বিধিভঙ্গ হয়েছে, এই অভিযোগে কমিশনকে চিঠি দিয়েছে সিপিএম। তাদের আরও অভিযোগ, সেনাকে নির্বাচনী প্রচারে ব্যবহার করা যাবে না, কমিশনের এই নির্দেশকেও কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়েছেন মোদী। এই প্রেক্ষিতে মোদীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে সিপিএম।

পাশাপাশি অসমের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে বলেছিলেন, আমাদের জেতার জন্য লুঙ্গি ও ধুতির ভোট দরকার নেই। হিমন্ত বিশ্বশর্মার এই মন্তব্যে অসমে বিভাজনের রাজনীতি ইন্ধন পাবে বলেও চিঠিতে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই অশান্ত অসমে হিমন্ত বিশ্বশর্মার এই বিতর্কিত মন্তব্যের প্রেক্ষিতেও ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছে চিঠিতে।

এর আগে ভোট প্রচারে বেরিয়ে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সেনাবাহিনীকে মোদীজির সেনা বলে উল্লেখ করেছিলেন, এই অভিযোগকে নির্বাচন কমিশন হালকাভাবে নিয়েছে বলেও চিঠিতে অভিযোগ করেছে সিপিএম। প্রাক নির্বাচনী আবহকে তীব্র মেরুকরণের দিকে নিয়ে যাওয়া রুখতে এবং দলীয় স্বার্থে জাতীয় প্রতীক ব্যবহার বন্ধ করতে নির্বাচন কমিশনকে দৃঢ়তার সঙ্গে সঠিক পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন পলিটব্যুরো সদস্য নীলোৎপল বসু।

এর আগেও নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছিল সিপিএম। নির্বাচন ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পরও কীভাবে নরেন্দ্র মোদী বৈদ্যুতিন মাধ্যমে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই কমিশনে অভিযোগ জানিয়েছে সিপিএম। এবার লাতুরের জনসভায় ফের মোদীর বিরুদ্ধে বিধিভঙ্গের অভিযোগে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিলেন সিপিএম নেতা নীলোৎপল বসু। নির্বাচন কমিশন এক্ষেত্রে কী ব্যবস্থা নেয় এবার সেটাই দেখার।

Comments
Loading...