কুণাল কামরার পাশে সিপিএম নেতা শতরূপ, এক বছরের জন্য ইন্ডিগো বয়কটের ঘোষণা, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর নির্দেশে নিষেধাজ্ঞা স্পাইস জেটেরও

ইন্ডিগো বিমানের মধ্যে নিউজ চ্যানেল রিপাবলিক টিভির অ্যাঙ্কর অর্ণব গোস্বামীর সঙ্গে দুর্ব্যবহারের অভিযোগে স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান কুণাল কামরার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বিমান সংস্থা ইন্ডিগো। কুণালের এই ব্যবহার ঠিক না ভুল, তাই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া আড়াআড়ি ভাগ হয়ে গিয়েছে। স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ানের পাশে দাঁড়িয়ে ট্যুইটারে চলছে ‘#বয়কটইন্ডিগো’ট্রেন্ড। এই ট্রেন্ডে সামিল হলেন সিপিএম নেতা শতরূপ ঘোষ। কুণালের সমর্থনে একবছর ইন্ডিগো বিমানে চড়বেন না বলে ঘোষণা করলেন কলকাতার এই সিপিএম নেতা। ইন্ডিগোর অফিসিয়াল ট্যুইটার হ্যান্ডেলকে ট্যাগ করে তিনি লেখেন, কুণাল কামরার বিরুদ্ধে আপনাদের রাজনৈতিকভাবে প্রভাবিত পদক্ষেপের প্রতিবাদ জানিয়ে আগামী একবছরের জন্য ইন্ডিগো বয়কট করলাম। ট্যুইটের শেষে হ্যাশট্যাগ দিয়ে শতরূপ লেখেন ‘বয়কট ইন্ডিগো’।


এরপর আর একটি ট্যুইটে এয়ার ইন্ডিয়াকেও আক্রমণ করেন শতরূপ। অনির্দিষ্টকালের জন্য রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থাটি কুণালকে বিমান উঠতে দেবে না বলে জানিয়েছে। এই প্রেক্ষিতে শতরূপের ট্যুইট, ‘ভাই কুছ তো শরম করো। কুছ হি দিনো মে বিকনে ওয়ালে হো’, অর্থাৎ একটু তো লজ্জা করো, কিছুদিনের মধ্যেই তো বিক্রি হয়ে যাবে।


প্রসঙ্গত, গত সোমবার কেন্দ্রের তরফে সরকারিভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়, আগামী ১৭ মার্চের মধ্যে এয়ার ইন্ডিয়া কেনার জন্য আগ্রহীদের আবেদন করতে হবে। এখানেই থামেননি সিপিএম নেতা। বিমানে অর্ণব গোস্বামীর যে ভিডিয়োটি কুণাল ট্যুইটারে পোস্ট করেছিলেন, সেটিকেই রিট্যুইট করে তিনি লেখেন, সাবাশ কুণাল কামরা। কখনও চুপ থেক না।


স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ানকে এয়ার ইন্ডিয়া ছ’ মাসের জন্য বয়কটের ঘোষণার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজার হাজার নেটিজেন ইন্ডিগো বয়কটের ডাক দিয়েছেন। তাঁদের কারও বক্তব্য, রাজনৈতিক মত আলাদা হওয়ার জন্য চাপে পড়ে কুণালকে বয়কট করেছে এয়ার ইন্ডিয়া। আবার বেসরকারি হাতে বিক্রি হতে যাওয়া এয়ার ইন্ডিয়া ইন্ডিগোর রাস্তা ধরে কুণালকে বয়কটের ডাক দেওয়ায় রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থার পদক্ষেপকেও জোর কটাক্ষ চলছে।
এদিকে সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, স্পাইসজেট কর্তৃপক্ষও কুণালের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তা নিয়ে কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন, কিছুদিন আগে যখন বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা সিংহ স্পাইসজেটের বিমানে উঠে বসার জায়গা নিয়ে টালবাহানা করছিলেন, সহযাত্রীদের বিড়ম্বনা বাড়িয়েছিলেন, তখন তাঁর বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল? সব মিলিয়ে অর্ণব গোস্বামী বনাম কুণাল কামরা নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ ও জোর তরজা চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Comments
Loading...