মুকুল রায়: কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে পোস্টার কাঁচড়াপাড়ায়, বড়বাজারের দুর্নীতি মামলায় পুলিশের সঙ্গে সহযোগিতার নির্দেশ আদালতের

কিছুদিন আগেই কলকাতার বড়বাজার থানা এলাকার এক মামলায় বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিল ব্যাঙ্কশাল কোর্ট। এই মামলায় মুকুল রায়কে তদন্তে পুলিশকে সহযোগিতা করার জন্য বৃহস্পতিবার নির্দেশ দিয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট। এরই মধ্যে এবার নিজের এলাকা কাঁচড়াপাড়াতেই কাটমানি নিয়ে পোস্টার পড়ল বিজেপি নেতা মুকুল রায় ও তাঁর পুত্র শুভ্রাংশু রায়ের বিরুদ্ধে।
মুখ্যমন্ত্রীর কাটমানি ফেরতের বার্তার পর জেলায় জেলায় দুর্নীতিতে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতাদের বাড়ি ঘেরাও করছে সাধারণ মানুষ। যার অধিকাংশ অভিযানেই নেতৃত্ব দিচ্ছে বিজেপি। কিন্তু এবার কাটমানি ইস্যু ব্যুমেরাং হয়ে তৃণমূলত্যাগী বিজেপি নেতা মুকুল রায় ও তাঁর পুত্র শুভ্রাংশু রায়কে নিশানা করল। মুকুল ও শুভ্রাংশু রায়ের কাছে কাটমানি ফেরতের দাবি করে পোস্টার পড়ল কাঁচড়াপাড়াতেই।

বৃহস্পতিবার কাঁচড়াপাড়ায় মুকুল রায়ের বাড়ির সামনে, তিনি কাটমানি নিয়েছেন এই অভিযোগ করে পোস্টার পড়েছে। পোস্টার পড়েছে কাঁচড়াপাড়ার বিস্তীর্ণ এলাকায়। মুকুল রায় ও বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায় কাঁচড়াপাড়ার উন্নয়নে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন, এমনই অভিযোগ করা হয়েছে ওই পোস্টারে। শুধু তাই নয় বাবা-ছেলেকে ‘চিটিংবাজ’ বলে অভিযোগ করা হয়েছে। প্রশ্ন তোলা হয়েছে তাঁদের আর্থিক সঙ্গতি ও সম্পত্তি বৃদ্ধি নিয়ে। সেই টাকা ফেরতের দাবি জানানো হয়েছে পোস্টারে। কে বা কারা এই পোস্টার লাগিয়েছে জানা না গেলেও মুকুল রায় একে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা বলে মন্তব্য করেছেন।
অন্যদিকে, বড়বাজারের এক পুরনো মামলায় সম্প্রতি ব্যাঙ্কশাল কোর্ট গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে। সেই মামলায় মুকুল রায়কে তদন্তে সহযোগিতার নির্দেশ দিয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট। পাশাপাশি, মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে আগামী ১০ দিনের মধ্যে পুলিশ চরম ব্যবস্থা নিতে পারবে না বলেও জানিয়েছে আদালত। এর মধ্যেই নিজের খাসতালুকেই দুর্নীতির অভিযোগে পোস্টার পড়ায় অস্বস্তিতে মুকুল রায়।
প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর বিরুদ্ধে পোস্টার পড়েছিল তাঁর লোকসভা কেন্দ্র বসিরহাটে। কাটমানি নিয়ে তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণ করা সায়ন্তনের বিরুদ্ধে লোকসভা ভোটের সময় ২ কোটি টাকা দুর্নীতির অভিযোগ করা হয়। এ সব তৃণমূলের মিথ্যা প্রচারের চেষ্টা বলে দাবি করেছিল রাজ্য বিজেপি।

Comments
Loading...