প্রবল বেগে ধেয়ে আসছে বুলবুল, সতর্কতা জারি আবহাওয়া অফিসের

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। ক্রমেই শক্তি বাড়াচ্ছে বুলবুল। তার অভিমুখ পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের দিকে। এখন কলকাতা থেকে প্রায় ৯৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে বুলবুলের অবস্থান। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও শক্তিশালী হয়ে সে পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলের দিকে ধেয়ে আসবে। তার প্রভাবে শুক্রবার থেকেই বৃষ্টি হবে ও ঝোড়ো হাওয়া বইবে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায়। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে আগামী ২৪ ঘণ্টায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। আবহাওয়া অফিস জানাচ্ছে, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর সহ অন্যান্য জেলাতে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির হবে। তবে সোমবার সকাল থেকে বুলবুল আসল রূপের আভাস পেতে পারে বঙ্গবাসী। শুক্রবার সকালে বঙ্গোপসাগরীয় অঞ্চলে থেকে ৮৫ থেকে ৯৫ কিলোমিটার বেগে হাওয়া বইবে। শনিবার থেকে ঝড়ের তীব্রতা বাড়ার আশঙ্কা। ১২০ থেকে ১৩০ কিলোমিটার বেগে ঝড় বইবে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী অঞ্চলে ৬০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়ার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। যাঁরা ইতিমধ্যেই সমুদ্রে পাড়ি দিয়েছেন, বৃহস্পতিবারই তাঁদের ফিরে আসতে বলা হয়েছে। আগামী ১০ ও ১১ নভেম্বর পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টি ও রাজ্যের অন্যান্য জায়গায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এ রাজ্যের পাশাপাশি আগামী ২৪ ঘণ্টায় আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ, ওড়িশায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। প্রথমদিকে বুলবুলের অভিমুখ ছিল ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ। পরে ধীরে ধীরে গতি পরিবর্তন করে তা পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের দিকে এগোচ্ছে। অন্যদিকে, আরব সাগরে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘মহা’ ক্রমশই দুর্বল হয়ে পড়ছে। শক্তি হারিয়ে সে নিম্নচাপে পরিণত হচ্ছে।

Comments
Loading...