মোদী জমানায় সাধারণ মানুষের জন্য নোট বন্দির লম্বা লাইন, শিল্পপতিদের জন্য কালো টাকা সাদা করার সুযোগ, কেন্দ্রকে তোপ রাহুলের

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অব্যাহত কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর  ট্যুইট বাণ। সোমবার একটি নতুন ট্যুইট মারফত কেন্দ্রকে বিঁধেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। রাহুল লিখেছেন, মোদীর জমানায় সাধারণ মানুষের জন্য আছে-নোট বন্দি, লম্বা লাইন দিয়ে টাকা জমা দেওয়া, নিজের টাকা নিজের ইচ্ছা মতো তুলতে না পারা আর আধারের মাধ্যমে নিজের তথ্য জমা করা। অন্যদিকে, মোদী জমানায় উদ্যোগপতি, শিল্পপতিদের জন্য উপহার হল-নোট বন্দির অছিলায় কালো টাকাকে সাদা করার সুযোগ, ৩ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি ঋণ নিয়ে ব্যবহার করা, যা কিনা জনসাধারণের টাকা। রাহুল তাঁর এই ট্যুইটের জন্য দৈনিক ‘ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে’এর এক প্রতিবেদনকে হাতিয়ার করেছেন। যেখানে আরবিআই’কে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, গত চার বছরে, এপ্রিল ২০১৪ থেকে এপ্রিল ২০১৮ র মধ্যে দেশের ২১ টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক মোট ৩ লক্ষ ১৬ হাজার ৫০০ কোটি টাকার ঋণ দিয়েছে। অথচ ব্যাঙ্কে শোধ হিসাবে জমা পড়েছে ঋণ নেওয়া টাকার মাত্র এক সপ্তমাংশ। অর্থাৎ, ৪৪ হাজার ৯০০ টাকা। আরবিআই-এর মতে যে পরিমান ঋণ এই ক’বছরে দেওয়া হয়েছে তা শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও সামাজিক খাতে কেন্দ্রের তরফে বাজেটে যা বরাদ্দ করা হয়েছে এবছর তার প্রায় দ্বিগুন। আরও জানা গেছে, ২০১৪ সালের আগের ১০ বছরের দেওয়া ঋণের থেকে গত চার বছরে দেওয়া ঋণের পরিমাণ প্রায় ১৬৬ শতাংশ বেশি।
রবিবারই রাহুল অভিযোগ করেছিলেন, নরেন্দ্র মোদী নিজের পছন্দের একটি পরিকাঠামো নির্মাণ সংস্থাকে আর্থিক সুবিধা পাইয়ে দিতে  ও দেউলিয়া হওয়া থেকে বাঁচাতে এলআইসি, স্টেট ব্যাঙ্কের মতো রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা, যেখানে সাধারণ মানুষের কষ্টার্জিত টাকা গচ্ছিত থাকে সেখানের টাকা ব্যবহার করছেন।

Comments
Loading...