তৃণমূল ছাড়লেন ডায়মন্ড হারবারের বিধায়ক দীপক হালদার, যোগ দিচ্ছেন বিজেপিতে

বেশ কিছুদিন ধরেই বেসুরো ছিলেন তিনি, কোনও সভাতেই উপস্থিত থাকতে দেখা যায়নি তাঁকে

বেশ কিছুদিন দলীয় অনুষ্ঠানে দেখা যাচ্ছিল না তাঁকে। সব জল্পনা শেষে বিজেপিতে নাম লেখাতে চলেছেন ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল বিধায়ক দীপক হালদার। তৃণমূল ভবনে স্পিড পোস্ট করে দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলা সভাপতি শুভাশিস চক্রবর্তীকে দলত্যাগের চিঠি পাঠিয়েছেন। মঙ্গলবার রাজীব ব্যানার্জি আর শুভেন্দু অধিকারীর উপস্থিতিতে বারুইপুরের সভা থেকে গেরুয়া পতাকা হাতে নেবেন দীপক হালদার।

ডুমুরজলায় বিজেপির যোগদান মেলায় শুভেন্দু অধিকারী হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে কলকাতা আর দক্ষিণ ২৪ পরগণা ফাঁকা হবে। হুঁশিয়ারির ২৪ ঘন্টা পরেই শুভেন্দু-রাজীবের হাত ধরেই দীপক হালদার পদ্ম কাননে যেতে চলেছেন দীপক ঘোষ।

বেশ কিছুদিন ধরেই বেসুরো ছিলেন তিনি। কুলতলি থেকে ডায়মন্ডহারবার, সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জির কোনও সভাতেই উপস্থিত থাকতে দেখা যায়নি তাঁকে। রাজনীতিতে দীপক শোভন চ্যাটার্জির অনুগামী হিসেবেই পরিচিত ছিলেন।

কয়েকদিন আগে দক্ষিণ ২৪ পরগনার তৃণমূলের প্রাক্তন জেলা সভাপতি তথা বর্তমান বিজেপি নেতা শোভন চ্যাটার্জির বাড়িতে ঢুকতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। বিভিন্ন দুর্নীতিতে তাঁর নাম জড়িয়েছে। তৃণমূল নেতৃত্বের পক্ষ থেকে একাধিকবার সাবধান করা হলেও কাজ হয়নি বলে দাবি দলের নেতাদের। দল বিরোধী কাজে ২০১৫ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর তাঁকে তৃণমূল থেকে বহিষ্কার করা হয়। কিন্তু অল্প কয়েক মাসের শাস্তির পর দলে ফিরিয়ে ২০১৬ সালে ফের ডায়মন্ডহারবারে প্রার্থী করা হয় দীপককে। সে বারও জেতেন তিনি।
কিন্তু ২০২১ সালের ভোটে তাঁর টিকিট পাওয়ার আশা ছিল অত্যন্ত ক্ষীণ। তা আঁচ করতে পেরেই কি দল ছাড়লেন তিনি? বিজেপিতে গেলেও টিকিট পাবেন কি? প্রশ্ন এখন সেটাই।

Comments
Loading...