লাইন দিয়ে স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাল দিলীপ ঘোষের পরিবার

পরিবারের সবাই বলছিল তাই কার্ড করালাম, জানালেন দিলীপের ভাই

দিলীপ ঘোষ স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নিয়ে মমতা সরকারকে যতই আক্রমণ করুন না কেন, তাঁর বাড়ির সদস্যরা কিন্তু রীতিমতো লাইনে দাঁড়িয়ে করলেন স্বাস্থ্য সাথী কার্ড। 

এমনই ঘটেছে ঝাড়গ্রামের গোপীবল্লভপুরে। দুয়ারে সরকারের শিবিরে লাইনে দাঁড়িয়ে দিলীপ ঘোষের নিজের ভাই হীরক ঘোষ এবং দিলীপের খুড়তুতো ভাই সুকেশ ঘোষের পরিবার স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড সংগ্রহ করেন। 

রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ প্রতিটি জনসভায় নিয়ম করে স্বাস্থ্য সাথীর সঙ্গে কেন্দ্রের আয়ুষ্মান ভারতের তুলনা টানছেন। বলছেন, আয়ুষ্মান ভারত কেন স্বাস্থ্য সাথীর চেয়ে হাজার গুন ভালো। অথচ সেই সভাপতির বাড়ির লোকজনই লাইন দিয়ে করিয়ে ফেললেন স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড। গোটা ঘটনায় রাজনৈতিক মহলে হাসির রোল উঠলেও স্বভাবতই অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির। 

সূত্রের খবর, দিলীপের দুই ভাই হীরক ও সুকেশ, দুজনেই বিজেপির স্থানীয় নেতা। হীরক ঘোষ গোপীবল্লভপুর ২ মণ্ডলের বিজেপি সভাপতি। আর খুড়তুতো ভাই সুকেশ ঘোষ ঝাড়গ্রাম বিজেপির সহ সভাপতি। 

গত বছর ডিসেম্বরে দুয়ারে সরকার কর্মসূচি চালু হতেই স্বাস্থ্য সাথীর কার্ডের জন্য আবেদন করে রেখেছিলেন দিলীপ ঘোষের পরিবারের সদস্যরা। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে স্থানীয় কুলিয়ানা গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসের দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে গিয়ে লাইন দিয়ে ছবি তুলিয়ে এসেছেন ঘোষ পরিবার। পরবর্তীতে স্বাস্থ্য সাথীর কার্ডও হাতে পান তাঁরা। বাদ গিয়েছেন একমাত্র দিলীপ ঘোষ। সংবাদমাধ্যমের কাছে সুকেশ বাবু জানিয়েছেন বাড়ির লোকেরা বারবার স্বাস্থ্য সাথীর কথা বলছিলেন তাই কার্ড করিয়ে নিলাম। শুধু দিলীপের পরিবারই নয় ঝাড়গ্রামের বিজেপি সভাপতি সুখময় শতপথির পরিবারের সদস্যরাও দুয়ারে সরকার ক্যাম্প থেকে স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করিয়েছেন।

যে দিলীপ ঘোষ নিয়ম করে স্বাস্থ্য সাথীর বিরোধিতা করছেন তাঁর পরিবার স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করিয়ে ফেললেন। যদিও এই বিষয়ে দিলীপ ঘোষের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Comments
Loading...