শক্তি আছে তাই করোনাকে মেরে দিয়েছি, দুর্বলরাই করোনায় ঘায়েল, ফের দিলীপ-বানী

শুক্রবার মালদার সাহাপুর কালিতলা বাজারে চায়ে পে চর্চা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দিলীপ ঘোষ

তাঁর শক্তি আছে তাই করোনাকে মেরে দিয়েছেন। যাঁরা দুর্বল একমাত্র তাঁদেরই করোনা আক্রমণ করছে। দাবি রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের।

করোনা নিয়ে যখন উদ্বিগ্ন গোটা দেশ। চিকিৎসকরা বারবার সচেতন করছেন সাধারণ মানুষকে। করোনা পরিস্থিতিতে কী করা উচিত কী করা উচিত নয়, তা নিয়ে বিস্তর গাইড লাইন দিচ্ছেন ডাক্তাররা। এই পরিস্থিতিতে চায়ে পে চর্চা কর্মসূচিতে গিয়ে করোনা মোকাবিলা নিয়ে একগুচ্ছ পরমার্শ দিতে দেখা গেল রাজ্য বিজেপির সভাপতিকে।

শুক্রবার মালদার সাহাপুর কালিতলা বাজারে চায়ে পে চর্চা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দিলীপ ঘোষ। উপস্থিত অনুগামীদের তিনি একগুচ্ছ উপদেশ দেন। বলেন, গরম খাবার খেতে। গরম খাবার খেলে তাড়াতাড়ি হজম হয়, কিন্তু ঠান্ডা খাওয়ার শরীরের ভিতরে গিয়ে গরম হয়, যার ফলে শরীরের সব তাপমাত্রা শুষে নেয়। তাই এই সময়ে ঠান্ডা জল বা ঠান্ডা খাওয়ার খাওয়া উচিত নয়।

সেই সঙ্গে তিনি বেশি মাত্রায় জল খাওয়া থেকেও বিরত থাকতে বলেন। তাঁর কথায়, সারাদিনে দু’তিন লিটার জলই যথেষ্ট, এর থেকে বেশি জল খাওয়া উচিত নয়। দিলীপের টিপ্পনি, যে ডাক্তাররা চার পাঁচ লিটার জল খাওয়ার কথা বলেন, তাঁরা নিজেরাও অত জল খান না।
তুলসী, বেলপাতা, আদা দিয়ে কাড়া বানিয়ে খাওয়ার কথাও বলেন তিনি।
মহিলাদের শাড়ি কেটে মাস্ক বানানোর উপদেশও দেন।

[আরও পড়ুন- সরি, বুঝতে পারিনি করোনার ওষুধ! রাতে চুরি, সকালেই ফেরত হরিয়ানার হাসপাতালের ১৭০০ টিকা]

বিজেপির রাজ্য সভাপতির স্বাস্থ্য সচেতনতা সর্বজনবিদিত। রোজ সকালেই তাঁকে নিয়ম করে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে মর্নিং ওয়ার্ক করতে দেখা যায়। গেঞ্জি, হাফ প্যান্ট, জগিং সু পড়ে বিরোধীদের বাছা বাছা শব্দে আক্রমণ করছেন দিলীপ ঘোষ, রাজ্য রাজনীতিতে এ অতি পরিচিত দৃশ্য।

Comments
Loading...