শীত আসছে, চলুন বেড়িয়ে আসি ডুয়ার্স

পুজোর ছুটি শেষ। শীত আসি আসি করছে। এই শীতের ছুটিতে অল্প খরচে কাছেপিঠের মধ্যে ঘুরে আসার সবচেয়ে ভালো জায়গা উত্তরবঙ্গের ডুয়ার্স। গরুমারা, চাপরামারি, জলদাপাড়া, খয়েরমারি অভয়ারণ্য আর তিস্তা, তোর্সা, জলঢাকা নদী ও জয়ন্তী পাহাড়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য চুটিয়ে উপভোগ করতে হলে এই শীতেই ডুয়ার্স বেড়িয়ে আসুন। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরা ডুয়ার্সের আকর্ষণ বহুগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের পর্যটন দফতর। ডুয়ার্সের ছোট-ছোট গ্রাম, চা বাগান, আর সবুজে ভরা প্রকৃতিকে প্রাণভরে উপভোগ করার জন্য শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ারের পর্যটন ক্ষেত্রের বিশেষ প্রসার ঘটেছে গত কয়েক বছরে।
দার্জিলিং-এ ছুটি কাটিয়ে নেমে আসতে পারেন শিলিগুড়িতে। রাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহরে একইসঙ্গে পাবেন শহুরে সুবিধা আর প্রকৃতির অকৃত্রিমতার স্বাদ। শিলিগুড়ি ভ্রমণের সবচেয়ে ভালো সময় সেপ্টেম্বর থেকে মার্চ মাস। দর্শনীয় স্থানগুলির মধ্যে রয়েছে শিলিগুড়ি থেকে ২৯ কিলোমিটার দূরের মংপং। তিস্তার তীরবর্তী মংপংয়ের নিস্তব্ধতা উপভোগ করতে করতে কানে আসবে মহানন্দা অভয়ারণ্যে ঢোকার পথে রেল ইঞ্জিনের হুইসেলের আওয়াজ। এরপর মহানন্দা অভয়ারণ্যের দীর্ঘ ১৫৯ স্কোয়ার কিলোমিটার ঘন জঙ্গল রয়েছে আর এক দর্শনীয় স্থান। রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার, লেপার্ড, হাতি ও অন্যান্য জীবজন্তুকে কাছ থেকে দেখার অনন্য সুযোগ মিলবে এখানে। ভারতীয় পর্যটকদের জন্য অভয়ারণ্যের টিকিট মূল্য ১০০ টাকা এবং বিদেশিদের জন্য ৩০০ টাকা। ডুয়ার্সের মনোরম আবহাওয়া, অভয়ারণ্য, পৃথিবীর বিখ্যাত চা বাগানগুলোর মধ্যে কয়েকটি বাগান মিলবে এখানেই। থাকার জন্য রয়েছে ছোট-বড় প্রচুর হোটেল।
জলপাইগুড়ি থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে চালসা গ্রামের অপার সৌন্দর্য আপনাকে মুগ্ধ করবেই। অ্যাডভেঞ্চারিস্ট হলে ট্রেকিং-এর আনন্দও নিতে পারেন এখানে। চালসা থেকেই একটু দূরে লাটাগুড়ি। তারপরেই বিখ্যাত গরুমারা অভয়ারণ্য। চালসায় গেলে থাকতে পারেন টিয়াবন রিসর্টের মতো জায়গায়। গরুমারা অভয়ারণ্যে ঘুরতে যাওয়ার আদর্শ সময় হল শীতকাল। এখানেও রয়েছে বেশ কয়েকটি ভালো হোটেল।
ব্রিটিশ শাসনের আড়ম্বরপূর্ণ ইতিহাস চাক্ষুষ করতে গেলে কোচবিহার যেতেই হবে। দর্শনীয় স্থানের মধ্যে রয়েছে কোচবিহার প্যালেস, সাগরদিঘি, মদনমোহন মন্দির, বানেশ্বর শিবমন্দির ইত্যাদি। কোচবিহারে থাকার জায়গার মধ্যে কয়েকটি বিখ্যাত হোটেল হল, হোটেল ইলোরা, হোটেল রয়্যাল প্যালেস, মহারাণি প্যালেস, হোটেল গ্যালাক্সি।
রাজ্যের নবতম জেলা আলিপুরদুয়ারের অন্যতম দর্শনীয় স্থান হল বক্সা জাতীয় উদ্যান, বক্সা ব্যাঘ্র সংরক্ষণ, বক্সা ফোর্ট। বক্সা জঙ্গলের গভীরেই রয়েছে বক্সা ফোর্ট। ব্রিটিশ শাসনে বহু বিপ্লবী নেতাকে আটকে রাখা হত এখানে। ১৯৫৯ সালে চিন থেকে পালিয়ে আসা বৌদ্ধ সন্ন্যাসীরা আশ্রয় নেন এখানেই।
একসঙ্গে চা বাগান, নদী, পাহাড়ের সমাবেশে সামসিংয়ের সৌন্দর্যও অপূর্ব। এই রাজ্যের মধ্যেই পাহাড়, নদী, জঙ্গল বেড়ানোর জন্য আদর্শ হল ডুয়ার্স অঞ্চল। যা পর্যটন ক্ষেত্র হিসেবে কয়েক বছরের মধ্যে ব্যাপক প্রসার পেয়েছে রাজ্য সরকারের সৌজন্যে।

 

Comments
Loading...