Duare Sarkar: প্রথম দিনেই ব্যাপক সাড়া, ২ লক্ষেরও বেশি আবেদন

মঙ্গলবার থেকে রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছে ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচি। প্রথম দিনেই ভিড় উপচে পড়ল ক্যাম্পগুলোতে। সরকারের দাবি, মঙ্গলবার সন্ধে পর্যন্ত মোট ২ লক্ষ ১৯ হাজার ৯৯৪ জন মানুষ হাজির হয়েছিলেন। আবেদন জমা পড়েছে মোট ২ লক্ষ ১৮ হাজার ২৬৯ টি। 

সরকারের নয়া কর্মসূচিকে ঘিরে সাধারণ মানুষের এমন সাড়া এবং প্রশাসনের তৎপরতায় খুশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। সোমবার এই বিষয়ে ট্যুইটও করেন তিনি। 

বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুবিধা দিতে ‘সরকার দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছবে’, এ কথা মুখ্যমন্ত্রী নিজেই ঘোষণা করেছিলেন। মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে সেই কর্মসূচি শুরু হওয়ার পর দেখা যায় ক্যাম্পগুলিতে লাইন দিয়ে আসতে শুরু করেছেন মানুষ। খাদ্যসাথী, স্বাস্থ্যসাথী, শিক্ষাশ্রী, কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, ঐক্যশ্রী, জাতিগত শংসাপত্র, তফসিলি বন্ধু, জয় জোহার, কৃষকবন্ধু এবং ১০০ দিনের কাজ— এইসব প্রকল্পের সুবিধা নেওয়ার জন্য ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির প্রথম দিনেই লক্ষাধিক আবেদন জমা পড়ে। সরকারের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, কর্মসূচির প্রথম দিনে সবচেয়ে বেশি ভিড় হয় দক্ষিণ ২৪ পরগনায়। জেলার ৮২ টি ক্যাম্পে ৪৯ হাজার ৮২৭ জন মানুষ সরকারি পরিষেবা নিতে আসেন। তারপরে যে জেলায় এই সমাগম লক্ষ্য করা গিয়েছে সেটা হল পশ্চিম মেদিনীপুর। ২৬ টি ক্যাম্পে ১৯ হাজার ৩১৭ জন মানুষ গিয়েছিলেন। এছাড়া হাওড়া, নদিয়া, পূর্ব বর্ধমান, পূর্ব মেদিনীপুর, মুর্শিদাবাদ জেলাতেও দুয়ারে সরকার প্রকল্পের সুবিধা নিতে হাজির হন প্রচুর মানুষ। 

মঙ্গলবার দিনের শেষে রাজ্যের ৬৬০ টি ক্যাম্পে মোট ২ লক্ষ ১৯ হাজার ৯৯৪ জন যোগাযোগ করেছেন। বিভিন্ন প্রকল্প বা সরকারি পরিষেবার বিষয়ে অভিযোগ নিয়েও হাজির হন অনেকে।

রাজ্যের ৩৪৪ টি ব্লকে মোট ২০ হাজার ক্যাম্প করা হচ্ছে বলে নবান্ন সূত্রে জানানো হয়েছিল। প্রত্যেকটি পঞ্চায়েতে পৌঁছে ক্যাম্প করছেন সরকারি আধিকারিক ও কর্মীরা। স্থানীয় বাসিন্দাদের আবেদনের ভিত্তিতে ওই সব ক্যাম্প থেকেই তাঁদের সমস্যা সমাধানের ব্যবস্থা করা হবে। আগামী ২ মাস চলবে ক্যাম্প।

Comments
Loading...