একদিকে বুলবুলের হুঙ্কার, অন্যদিকে রাম মন্দির রায় নিয়ে টানটান উত্তেজনা। শনিবার সকাল থেকেই কলকাতার আকাশে ছিল বৃষ্টি এবং অলিতেগলিতে রাম মন্দির নিয়ে আলোচনা।
এই দুইয়ের প্রভাব শনিবার পড়েছে চলচ্চিত্র উৎসবের আসরেও।
শুক্রবার উদ্বোধন হলেও শনিবার থেকেই শহরের ১৭ টি পেক্ষাগৃহে শুরু হয়েছে ফেস্টিভালের ছবি দেখানো।
শনিবার সকাল ৯ টায় নন্দন ১ এ ছিল প্রথম শো। দমকা হাওয়া এবং বৃষ্টির কারণেই সম্ভবত এদিন সকালের সেরকম লোক চোখে পড়েনি। অন্যান্যবার এরকমটা হয় না। সকাল থেকেই নন্দনের সামনে লম্বা লাইন পড়ে যায়। সকাল ১১.৪৫ এ নন্দন ১ এ ছিল ভোলকার স্কলন্ডর্ফের দ্য টিন ড্রাম। সেরকম ভিড় চোখে পড়েনি এই শোতেও। তবে দুপুরের পর চিত্রটা বদলাতে শুরু করে। নন্দনে দুপুর ৩ টের শোতে বৃষ্টির মধ্যেই ছাতা মাথায় লম্বা লাইন দিয়ে দর্শকদের সিনেমা হলে প্রবেশ করতে দেখা যায়। দুপুরের পর ভিড় হয় রবীন্দ্র সদন এবং শিশির মঞ্চেও। এদিন নন্দনে বিকেল ৫ টা এবং সন্ধ্যে সাড়ে ৭ টার শোতেও মোটামুটি দর্শক আগমন হয়।
তবে বৃষ্টির কারণেই অন্যান্যবারের মতো এবারের প্রথম দিন সেই উন্মাদনা চোখে পড়েনি। ফাঁকা ছিল নন্দন, রবীন্দ্র সদন এলাকা। তবে সিনেপ্রেমীরা বৃষ্টি মাথায় নিয়েও এদিন বেশ কিছু ভালো সিনেমা দেখেছেন।
সিনেমা দেখার ফাঁকেই এদিন দর্শকদের মাঝে আলোচনার বিষয়বস্তু হিসেবে উঠে আসে অযোধ্যা মামলার রায়।
এদিন নন্দনে উপস্থিত ছিলেন এবারের ফেস্টিভাল চেয়ারম্যান রাজ চক্রবর্তী। ঘুরে ঘুরে তিনি আধিকারিক এবং দর্শকদের সাথে কথা বলে বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ খবর নেন। তবে এদিন নন্দন ১ এ দুপুর ৩ টের শোয়ে চেক প্রজাতন্ত্রের ছবি দ্য পেইন্টেড বার্ডে সাবটাইটেল চলেনি বলে অভিযোগ উঠেছে। রবীন্দ্র সদন এবং নন্দনের একাধিক হলে প্রথম দিনই বেশ কিছু ছবির শো টাইম কিছুটা পরিবর্তন করা হয়েছে। বিষয়গুলি নিয়ে অনেককেই ক্ষোভ প্রকাশ করতে শোনা গিয়েছে এদিন।

 

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরণের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Subscribe