রাজ্যের শীর্ষ পুলিশ কর্তাকে নিয়ে বেনজির আক্রমণ রাজ্যপালের, কোন মামলা নিয়ে জবাব তলব?

ফের রাজ্যপাল ধনখড় ও রাজ্য সরকারের ট্যুইট যুদ্ধ! এবার এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) জ্ঞানবন্ত সিংহের বিরুদ্ধে পুরনো মামলার তদন্তের গতিপ্রকৃতি নিয়ে রাজ্য প্রশাসনকে বেনজির আক্রমণ করলেন জগদীপ ধনখড়। কিন্তু রাজ্যের শীর্ষ পুলিশ কর্তাকে কেন আক্রমণ করলেন রাজ্যপাল, তাঁর বিরুদ্ধে কী তদন্ত চাইছেন, তাই নিয়ে প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন মহলে। তিনি কি ১৩ বছরের পুরনো রিজওয়ানুর মামলা নিয়ে কিছু জানতে চান? নাকি নতুন কিছু? সংশ্লিষ্ট ট্যুইট থেকে পরিষ্কার নয়।

বুধবার সকালে রাজ্য সরকার ও পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে একপ্রস্থ ট্যুইটারে আক্রমণ শানান পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল। বর্তমান এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) জ্ঞানবন্ত সিংহের বিরুদ্ধে পুরনো মামলার প্রসঙ্গ টেনে তাঁর অভিযোগ, এ ব্যাপারে মুখে কুলুপ এঁটেছেন রাজ্যের মুখ্যসচিব এবং রাজ্য পুলিশের ডিজি। রাজ্যপালের আরও অভিযোগ, জ্ঞানবন্ত সিংহের বিরুদ্ধে পুরনো মামলা নিয়ে তিনি প্রশাসনের কাছে জবাব চেয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া পাননি। এই মামলার তদন্তে রাজ্যের নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুরজিৎ কর পুরকায়স্থ এবং আইপিএস অফিসার রিনা মিত্রের ভূমিকা কী, তাও জানতে চান রাজ্যপাল।

যদিও রাজ্যপালের এই ট্যুইটের প্রেক্ষিতে স্বরাষ্ট্র দফতর শুধু জানিয়েছে জ্ঞানবন্ত সিংহের বিরুদ্ধে কোনও তদন্ত বকেয়া নেই।

কিন্তু এডিজি জ্ঞানবন্ত সিংহের বিরুদ্ধে কোন মামলার কথা বলছেন রাজ্যপাল?‌ ২০০৭ সালে রিজওয়ানুর রহমান মৃত্যু মামলায় আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে কলকাতা পুলিশের কয়েকজন পদস্থ অফিসারের বিরুদ্ধে, তাঁদের একজন জ্ঞানবন্ত। তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্তের সুপারিশ করেছিল সিবিআই। সেই তদন্ত কত দূর এগিয়েছে সেটাই কি রাজ্য প্রশাসনের কাছে জানতে চেয়েছেন রাজ্যপাল? যদিও তাঁর ট্যুইট থেকে তার স্পষ্ট উল্লেখ মেলেনি। এদিকে একাধিক ট্যুইটে রাজ্যপাল লিখেছেন, মমতা ব্যানার্জির নেতৃত্বে বহু সাংবিধানিক নিয়ম ভাঙছে পুলিশ প্রশাসন। তারা নিয়ম নিয়ে খেলা করছে এবং ভাবছে আইনের ঊর্ধ্বে। কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নন বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি। পুলিশকে রাজনৈতিকভাবে নিরপেক্ষ হয়ে কাজ করার পরামর্শ দেন। তবে এব্যাপারে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতর রাজ্যপালের নাম না উল্লেখ করে ট্যুইটারেই কড়া জবাব দিয়েছে। স্বরাষ্ট্র দফতরের অফিশিয়াল ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে লেখা হয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ে বারবার রাজ্য পুলিশ প্রশাসন ও সরকারি আধিকারিকদের ভূমিকা এবং দায়িত্বের ওপর আঙুল তোলা হচ্ছে। যা একবারেই ঠিক নয়। প্রশাসন চালানোর ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও সততার প্রতি পশ্চিমবঙ্গ সরকার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। 

যদিও এরপরেও একাধিক বিষয় নিয়ে রাজ্য সরকার ও প্রশাসনকে নিশানা করে ট্যুইট করে যান রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

Comments
Loading...