মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কালীপুজোয় যাচ্ছেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল, আমন্ত্রণ জানানোয় মমতাকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

মুখমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির বাড়ির কালীপুজোর আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন রাজ্যপাল। শনিবার বারাসতের এক কালীপুজোর উদ্বোধন করতে গিয়ে রাজ্যপাল জানান, মুখ্যমন্ত্রী বাড়ির কালীপুজোয় আমন্ত্রণ জানানোয় তিনি কৃতজ্ঞ। পাশাপাশি, রাজভবনের তরফেও এদিন এক বিজ্ঞপ্তিতে মুখ্যমন্ত্রীর আমন্ত্রণ গ্রহণের কথা পাকা করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধানকর।
আগামী ২৯ শে অক্টোবর ভাইফোঁটার দিন সস্ত্রীক মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি যেতে চেয়ে মমতাকে একটি ব্যক্তিগত চিঠি পাঠিয়েছিলেন রাজ্যপাল। উত্তরবঙ্গ সফর শেষে এই চিঠির প্রাপ্তি স্বীকার করে তার দু’দিন আগেই নিজের বাড়ির কালীপুজোতে রাজ্যপালকে যাওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানান মমতা ব্যানার্জি।
১৯৭৮ সালে শুরু হয় তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জির বাড়ির কালীপুজো। এবছর তা ৪০ বছরে পদার্পণ করেছে। মুখ্যমন্ত্রীর আমন্ত্রণ পেয়ে আপ্লুত রাজ্যপাল জানিয়েছেন, রবিবার স্ত্রী সুদেশ ধানকরকে নিয়েই মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কালীপুজো দেখতে যাচ্ছেন তিনি। গত ২৪ শে অক্টোবর মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, গত ৩০ বছর ধরে ভ্রাতৃদ্বিতীয়ার দিন তিনি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ব্যস্ত থাকেন। সেখানেও উপস্থিত থাকার স্বদিচ্ছা প্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল ধানকর।
গত সেপ্টেম্বরে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে হেনস্থার ঘটনায় তাঁকে রাজ্যপাল নিজে গিয়ে উদ্ধার করার প্রেক্ষিতে শাসক দলের সঙ্গে প্রথম সংঘাত তৈরি হয়। এরপর, দুর্গাপুজোর কার্নিভালে গিয়ে চরম অপমানিত হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছিলেন জগদীপ ধানকর। পাশাপাশি, তাঁর ডাকা প্রশাসনিক বৈঠকে রাজ্যের কোনও মন্ত্রী ও শীর্ষ আধিকারিক অংশ না নেওয়ার প্রেক্ষিতে রাজ্যপালের সঙ্গে রাজ্য সরকারের দূরত্ব তৈরি হয়।

Comments
Loading...