ভারতের সংবিধান কী? কী তার তাৎপর্য? স্বরা ভাস্করের ট্যুইট বার্তার পাশে কঙ্কনা সেনশর্মা, বিঁধলেন কেন্দ্রকে

হ্যাশট্যাগ হামারা সংবিধান বা আমাদের সংবিধান। সম্প্রতি ট্যুইটারে আশার আলো জ্বালছে এই হ্যাশট্যাগের বিভিন্ন পোস্ট। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি নজর কাড়ছেন বলিউডের প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর স্বরা ভাস্কর। যে ভারতের সংবিধান হাতে নিয়ে জামা মসজিদের সিড়ি দিয়ে নেমে এসেছিলেন ভিম আর্মির প্রধান চন্দ্রশেখর আজাদ রাবণ, সেই সংবিধানের অর্থ আজকের ভারতীয় তরুণ সমাজের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ? সংবিধানের তাৎপর্য কি আজ কমছে, কী বলছে আজকের প্রজন্ম? জানিয়েছেন স্বরা।
আর স্বরার সেই ট্যুইটকেই নিজের ওয়ালে রিট্যুইট করেছেন বলিউডের আরেক প্রতিবাদী কঙ্কনা সেনশর্মা। এই ট্যুইটে রয়েছে একটি ভিডিও ক্লিপ। যাতে স্বরা ভাস্কর নিজের কথায় বলছেন ভারতের সংবিধানের তাৎপর্য। বলছেন, এই সংবিধান ভারতের তরুণ প্রজন্মের অস্তিত্ব। স্বপ্ন দেখার উপকরণ। পাশাপাশি স্বরার ভিডিওতে উঠে এসেছে ভারতের সংবিধানের কেন অনন্য সেই প্রসঙ্গও। স্বরা বলছেন, প্রথম বিশ্বের দেশগুলো যখন মহিলাদের সমানাধিকারের কথাই কেবল বলেছে, সেই সময় দাঁড়িয়ে দারিদ্র্য, অসামঞ্জস্য ও বৈষম্যে ভরা ভারতের সংবিধান মহিলাদের ভোটাধিকার দিয়ে প্রমাণ করেছে তার অনন্যতা।
অসহিষ্ণুতা থেকে শুরু করে আজকের জামিয়া মিলিয়া কিংবা জেএনইউ। বারবার প্রতিবাদের স্বর ধ্বনিত হয়েছে অভিনেতা কঙ্কনা সেনশর্মার গলায়। সরকার বিরোধী অবস্থান নিলে বলিউডে কাজ পেতে সমস্যা হতে পারে। এই আশঙ্কাকে হেলায় উড়িয়ে বারাবর সোচ্চার হয়েছেন কঙ্কনা সেনশর্মারা। মুম্বইয়ের অগাস্ট ক্রান্তি ময়দানে হাজির হয়ে নিজের প্রতিবাদ নথিভুক্ত করেছেন। কিন্তু প্রশ্ন উঠছিল, এই প্রতিবাদ কেবল উপর উপর নয় তো? ঠিক কী কারণে প্রতিবাদ চলছে, তার সম্যক ধারণা আছে তো স্বরা, কঙ্কনাদের? এবার সেই সমালোচনারই সপাট উত্তর দিলেন স্বরা ভাস্কর। নিজের জবানে জানালেন সংবিধান রক্ষা করতেই তাঁদের এই প্রয়াস। যত আক্রমণই আসুক না কেন, এ পথ তাঁরা ছাড়বেন না। আর সেই ট্যুইট নিজের ওয়ালে শেয়ার করলেন কঙ্কনা সেনশর্মা। বুঝিয়ে দিলেন যতই ট্রোলিং হোক না কেন, সংবিধান রক্ষার শপথ থেকে পিছু হঠার প্রশ্ন নেই।
কী বলেছিলেন স্বরা ভাস্কর?
Comments
Loading...