দৈত্যের মতো গিলে খাবে স্থানীয় ব্যবসা, হরিদ্বারে ওয়ালমার্টের কুশপুতুল পুড়িয়ে বিক্ষোভ ব্যবসায়ী সমিতির

ওয়ালমার্টের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামলেন হরিদ্বারের স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। পোড়ানো হল মার্কিন বহুজাতিকের কুশপুতুল। হরিদ্বার থেকে আন্দোলনকে উত্তরাখণ্ডের কোণে কোণে পৌঁছে দিতে লাগাতার প্রচারও শুরু করেছে হরিদ্বার ভ্যাপার মণ্ডল নামে ব্যবসায়ীদের ওই সংগঠন।
সম্প্রতি উত্তরাখণ্ড সরকার ওয়ালমার্টকে রাজ্যে বিপণি তৈরি করার ছাড়পত্র দিয়েছে বলে সূত্রের খবর। রাজ্যের বাণিজ্যিক রাজধানী বলে পরিচিত হলদোয়ানি এবং রাজধানী দেহরাদুনের পাশাপাশি তীর্থস্থান হরিদ্বারেও ওয়ালমার্ট বিপণি খুলতে চলেছে বলে দাবি হরিদ্বার ভ্যাপার মণ্ডলের। আর এখানেই তীব্র আপত্তি তীর্থস্থানের স্থানীয় ব্যবসায়ীদের। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কালরার দাবি, ওয়ালমার্টের মতো সংস্থা এক লপ্তে প্রচুর পণ্য কেনে। ফলে পণ্যের দাম স্বাভাবিকভাবেই বেশ অনেকটা কমিয়ে বিক্রি করার স্বাধীনতা তাদের হাতে থাকে। যার সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামার সাধ্য নেই স্থানীয় ব্যবসায়ীদের। তাঁর অভিযোগ, এর ফলে মার খাবে স্থানীয়দের ব্যবসা। হরিদ্বারে মোট ৫ হাজার ছোট ব্যবসায়ী আছেন। তাদের মধ্যে ৪ হাজার ব্যবসায়ী এই সংগঠনের সদস্য। তারা সবাই ওয়ালমার্টের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।
হিন্দুদের তীর্থস্থান হরিদ্বারে মূলত শীত পোশাক, পুজোর সামগ্রী, হাতে তৈরি শিল্প সামগ্রী এবং কৃত্রিম অলঙ্কারের ব্যবসা চলে। এবং যা পুরোপুরি পর্যটনের উপর নির্ভরশীল। এই প্রেক্ষিতে হরিদ্বারের ব্যবসায়ী মহল অভিযোগ করছে, মেট্রো শহরগুলোতে ওয়ালমার্টের ব্যবসায়িক মডেল মেনে নেওয়া গেলেও, ছোট শহরে ওয়ালমার্ট দৈত্যের মতো সব গিলে ফেলবে। এর বিরোধিতায় রবিবার হরিদ্বারে বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে ব্যবসায়ী সমিতি। সেখানেই ওয়ালমার্টের কুশপুতুল পোড়ানো হয়। কিন্তু সরকারের তরফে এখনও সদর্থক সাড়া মেলেনি বলে জানাচ্ছেন প্রদীপ কালরা।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে প্রকাশ, উত্তরাখণ্ড সরকার ওয়ালমার্টকে তিনটি শহরে বিপণি তৈরির ছাড়পত্র দেওয়ার প্রেক্ষিতে ১ লা সেপ্টেম্বর থেকে ৭ ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নৈনিতাল, আলমোড়া, পিথোরাগড়, চামোলি, রুদ্রপ্রয়াগ, রানিখেত, ঋষিকেশ, দেহরাদুন, হলদোয়ানি এবং হরিদ্বারে লাগাতার বিক্ষোভ সমাবেশ সংগঠিত করা হবে। ওয়ালমার্টকে সরকারি ছাড়পত্র দেওয়ার প্রতিবাদে আমরা আন্দোলনকে রাজ্যের প্রতিটি অংশে ছড়িয়ে দিতে চাই। যাতে সরকার বাধ্য হয় আমাদের সঙ্গে কথা বলতে, বলছেন হরিদ্বারের এক স্থানীয় ব্যবসায়ী।
বর্তমানে দেশে ওয়ালমার্টের ২৬ টি বেস্ট প্রাইস মর্ডান হোলসেল স্টোর রয়েছে। ২০০৯ সালে এই মার্কিন বহুজাতিকের প্রথম বিপণিটি খোলে পাঞ্জাবের অমৃতসরে।
ব্যবসা বাঁচাতে ওয়ালমার্ট বিরোধিতায় স্থানীয় ব্যবসায়ী সংগঠন

Comments
Loading...