করোনায় হার্টের দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেও ভোগাতে পারে হৃদযন্ত্র, বলছেন গবেষকরা

ভারতে সংক্রমিতের সংখ্যা ১৭ লক্ষ ছুঁইছুঁই। আর সারা বিশ্বে সংক্রমণের শিকার হয়েছেন ১ কোটি ৭০ হাজার মানুষ। সংক্রমণের গতি যত বৃদ্ধি পাচ্ছে তেমনি উঠে আসছে নানাবিধ তত্ত্ব। সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় সামনে এসেছে এক নতুন তথ্য। দেখা যাচ্ছে, করোনা সংক্রমণের জেরে শুধুমাত্র ফুসফুস নয়, দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি হয় হার্টের!

গত মঙ্গলবার জার্মানির দুটি গবেষণাপত্র প্রকাশিত হয়েছে বিজ্ঞান জার্নাল JAMA Cardiology তে। সেখানে উঠে এসেছে কীভাবে কোভিড ভাইরাস সামান্য উপসর্গ ছাড়াও হৃদযন্ত্রকে দুর্বল করছে।

গবেষণায় জানা গিয়েছে আরও একটি তথ্য। Sars-Cov-2 এ সংক্রমিত হওয়া ৬০ শতাংশ রোগীর মায়োকার্ডিয়াল ইনফ্লেমেশন বা হার্টের পেশি ফুলে যাওয়ার মতো সমস্যা ছিল। করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীদের উপর করা হয়েছিল কার্ডিওভাস্কুলার ম্যাগনেটিক রেসোনেন্স ইমেজিং। এপ্রিল থেকে জুনের মধ্যে ফ্রাঙ্কফুর্টের ইউনিভার্সিটি হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরা ১০০ রোগীর উপর করা গবেষণার ভিত্তিতে এই তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। তাতে গবেষকরা জানাচ্ছেন, যে সব করোনা রোগীর উপর এই গবেষণা চালানো হয়েছিল, তাঁদের প্রত্যেকের বয়স ৪০ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে। এবং এঁদের ৭৮ শতাংশের মধ্যে দেখা দিয়েছে হৃদযন্ত্রের সমস্যা। ৬০ শতাংশের মধ্যে ছিল হার্ট মাসলে প্রদাহজনিত সমস্যা। যা নিয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার কয়েক মাস পরেও হৃদযন্ত্র যে স্বাভাবিক হয় না এটা তারই প্রমাণ। যদিও এ নিয়ে কোনও নির্দিষ্ট সিদ্ধান্তে আসতে আরও গবেষণা ও সময়ের প্রয়োজন বলে জানাচ্ছেন গবেষকরা। তবে আপাতভাবে তাঁরা নিশ্চিত যে, করোনাভাইরাসের দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব পড়ে মানুষের হৃদযন্ত্রের উপর। প্রথমে এর কোনও উপসর্গ বা অসুস্থতা প্রকাশ না পেলেও অদূর ভবিষ্যতে আক্রান্তের হার্ট ড্যামেজের আশঙ্কা থাকে।

জার্মানির গবেষকদের দ্বিতীয় গবেষণায় কোভিডে মৃত ৩৯ জনের অটোপসি রিপোর্ট থেকে উঠে এসেছে ২৪ জনের হার্ট টিস্যুতে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব ছিল।

চিকিৎসকরা দেখেছেন, অল্প সময়ের মধ্যে COVID-19 রক্ত ​​সঞ্চালন ব্যবস্থায় প্রায় ধ্বংসলীলা চালাতে পারে এবং বিপজ্জনকভাবে রক্ত ​​জমাট বাঁধতে সাহায্য করতে পারে। গত মার্চ মাসে সেল জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, কীভাবে ACE2 নামক কোষে এক ধরণের রিসেপটরের সঙ্গে আবদ্ধ হয়ে এই ভাইরাস শরীরে অনুপ্রবেশ করে। তবে কীভাবে এই ভাইরাস হৃদযন্ত্রে হামলা চালায় এবং কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে এর প্রভাব তা নিয়ে আরও পরীক্ষা নিরীক্ষার অবকাশ আছে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

অন্য একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে করোনাকে হারিয়ে বাড়ি ফেরার পরও ফুসফুসের পাশাপাশি কিডনি, লিভার এমনকি চোখেরও একাধিক সমস্যা দেখা দেয়।

Comments
Loading...