মোদীর রাফাল চুক্তির পর অনিল আম্বানীকে ১,১১০ কোটি কর মাফ ফ্রান্স সরকারের! ফরাসি দৈনিকের খবরে চাঞ্চল্য

রাফাল-অস্বস্তি পিছু ছাড়ছে না মোদী সরকারের। এবার ফরাসি দৈনিক ‘লে মুন্ড’-এ প্রকাশিত প্রতিবেদন ফের প্রশ্ন তুলে দিল রাফাল চুক্তির স্বচ্ছ্তা নিয়ে। প্রতিবেদনটিতে দাবি করা হয়েছে, নরেন্দ্র মোদী যখন রাফাল ডিল ফাইনাল করেন, ঠিক তার ৬ মাসের মধ্যে ফরাসি সরকারের তরফে প্রায় ১২০০ কোটি টাকা (১৪৩ মিলিয়ন ইউরো) ঋণ মকুব হয়ে গিয়েছিল অনিল আম্বানীর সংস্থার। যা নিয়ে আপাত উত্তপ্ত রাফাল মামলা আরও ঘনীভূত হতে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। পাল্লা দিয়ে বাড়তে পারে বিরোধীদের আক্রমণে ঝাঁঝ।

ফরাসি দৈনিককে উদ্ধৃত করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ‘দ্য উইক’। ১৩ ই এপ্রিল প্রকাশিত সেই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, দু’দেশের মধ্যে রাফাল চুক্তি সাক্ষরের পর, রিলায়েন্স কর্ণধার অনিল আম্বানীকে বিশাল অঙ্কের করছাড় দেয় ফ্রান্স। ফরাসি দৈনিকে প্রকাশ, সে দেশে ‘রিলায়েন্স আটলান্টিক ফ্ল্যাগ ফ্রান্স’ নামে অনিল আম্বানির একটি টেলিকম সংস্থা রয়েছে। ২০০৭ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত প্রায় ৬০ মিলিয়ন ইউরো কর বকেয়া ছিল অনিল আম্বানীর সেই ফরাসি সংস্থার। ফরাসি আয়কর বিভাগকে ৭.৬ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে যার নিষ্পত্তি চেয়েছিলেন অনিল আম্বানী। কিন্তু তখন সেই প্রস্তাবে রাজি হয়নি ফরাসি আয়কর বিভাগ। পাশাপাশি ২০১০ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত আয়কর বিভাগের তদন্তে, অনিলের সংস্থার কাছে আরও ৯১ মিলিয়ন ইউরো দাবি করা হয়, খবর ‘লে মুন্ড’ সূত্রে।

এর কিছুদিনের মধ্যেই ভারত-ফ্রান্স রাফাল চুক্তি সম্পাদিত হয়। ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেন ফ্রান্সের কাছ থেকে ৩৬ টি রাফাল যুদ্ধবিমান কেনা হচ্ছে। আর ফরাসি সংস্থার ‘অফসেট পার্টনার’ হিসেবে কাজের বরাত পায় অনিল আম্বানীর রিলায়েন্স।
‘লে মুন্ড’-এর প্রতিবেদনে প্রকাশ, ২০১৫ সালের অক্টোবরে মোদীর চূড়ান্ত রাফাল-ঘোষণার মাত্র ছয় মাসের মধ্যে, অনিল আম্বানীর সংস্থার কাছ থেকে মাত্র ৭.৩ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে এই মামলা মিটিয়ে নেয় ফ্রান্স সরকার। অর্থাৎ, ১৫০ মিলিয়ন ইউরোর জায়গায় ফরাসি সরকারকে মাত্র ৭.৩ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে রেহাই পায় অনিল আম্বানীর সংস্থা।
লোকসভা ভোটের মুখে রাফাল প্রসঙ্গ ক্রমেই অস্বস্তি বাড়াছে মোদী সরকারের। গত বছরের ডিসেম্বর মাসে রাফাল মামলায় ক্লিনচিট দেওয়া হয়েছিল মোদী সরকারকে। কিন্তু ‘দ্য হিন্দু’-এর একাধিক প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে, সম্প্রতি রাফাল মামলার পুনর্বিবেচনার আর্জি গ্রহণ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। ঠিক তখনই ফরাসি পত্রিকার প্রতিবেদন নতুন মাত্রা যোগ করল এই মামলায়।

Comments
Loading...