IIM Calcutta Placements: এবারের পাস আউটদের গড় বেতন ২৮ লক্ষ টাকা, চাহিদা বেশি কনসাল্টিং সেক্টরে

বছরে গড় বেতন ২৮ লক্ষ টাকা। ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট বা আইআইএম কলকাতা ২০২০ সালের ব্যাচের প্রত্যেক পড়ুয়াকে প্লেসমেন্টে চাকরি দিয়ে নয়া নজির গড়ল।
বুধবার আইআইএম কলকাতা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এ বছর তাদের ফাইনাল ব্যাচের প্রতিটি পড়ুয়ার প্লেসমেন্টে চাকরি হয়েছে এবং তাঁদের বার্ষিক গড় বেতন ২৮ লক্ষ টাকা, যা ২০১৯ সালের থেকে ১০ শতাংশ বেশি।

বেতনক্রম

আইআইএম কলকাতা জানিয়েছে, এ বছর তাদের ৪৩৯ জন পড়ুয়া প্লেসমেন্টে বসেছিলেন। তাঁদের ১৩৬ টি সংস্থা মোট ৪৯২ টি কাজের অফার দিয়েছে। এর মধ্যে পড়ুয়ারা তাঁদের পছন্দমতো চাকরি বেছে নিয়েছেন।
প্রতিষ্ঠান সূত্রের খবর, তাদের পড়ুয়ারা যে সংস্থাগুলি থেকে চাকরির প্রস্তাব পেয়েছেন, সেখানকার বার্ষিক গড় বেতন ২৮ লক্ষ টাকা এবং নিম্নতম বেতনক্রম ২৫.৫ লক্ষ টাকা। এদের মধ্যে ১০ শতাংশ চাকরি প্রার্থী পাচ্ছেন বার্ষিক ৫৪.৫ লক্ষ টাকা, যা রেকর্ড বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে IIM Calcutta Placements কমিটি |

কোন কোন সংস্থা কতজনকে চাকরি দিল?

কনসাল্টিং সেক্টর:

পড়ুয়ারা মোট চাকরির প্রস্তাবের ৩১ শতাংশ অফার পেয়েছেন কনসাল্টিং সেক্টর থেকে। বোস্টন কনসাল্টিং গ্রুপ, ম্যাকেনজি অ্যান্ড কোম্পানি, বেন অ্যান্ড কোম্পানি, কিয়ার্নি, প্রাইস ওয়াটার হাউস কুপারস এদের মধ্যে কয়েকটি উল্লেখযোগ্য সংস্থা।

ফিনান্স প্রাইভেট ইক্যুইটি ফার্ম:

এখান থেকে মোট ৮৩ টি অফার দেওয়া হপ্যেছে আইআইএম কলকাতার পড়ুয়াদের। মোট চাকরির প্রস্তাবের ১৭ শতাংশ চাকরি প্রদান করেছে সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্র। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল ব্যাঙ্ক অফ আমেরিকা মেরিল লিঞ্চ, বারক্লেজ, গোল্ডম্যান স্যাকস, গাজা ক্যাপিটাল, জেপি মরগান চেজ ইত্যাদি।

জেনারেল ম্যানেজমেন্ট, সেলস মার্কেটিং বিভাগ:

বিভিন্ন ম্যানেজমেন্ট, সেলস এবং মার্কেটিং সংস্থার তরফে এসেছে ৩০ শতাংশ চাকরির প্রস্তাব। টাটা অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস (টিএএস) আদিত্য বিড়লা গ্রুপ, মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা, রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ, বেদান্ত, ট্রু নর্থ, হিন্দুস্তান ইউনিলিভার, কোলগেট-পালমোলিভ, আইটিসি-র মতো সংস্থা ক্যাম্পাসিং-এর মাধ্যমে আইআইএম কলকাতার পড়ুয়াদের বেছে নিয়েছে।

ড্রিম, ওয়েট অ্যান্ড হোল্ড’

IIM Calcutta Placements কমিটি পড়ুয়াদের ‘ড্রিম’ এবং ‘ওয়েট অ্যান্ড হোল্ড’ এই দুটি অপশন দেওয়া হয়েছিল তাঁদের পছন্দসই কাজ বাছার জন্য। সেইসঙ্গে চাকরি প্রদানকারী সংস্থাকেও তাদের চাহিদা অনুযায়ী উপযুক্ত কর্মী বেছে নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। যার মধ্যে আইআইএম কলকাতার ৪৩৯ জন পড়ুয়া ৪৯২ টি চাকরির প্রস্তাব পান মোট ১৩৯ টি সংস্থার কাছ থেকে।

Comments
Loading...