প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট প্রস্তাব বিরোধীদের

দেশের ইতিহাসে এই প্রথম, প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে আনা হল ইমপিচমেন্ট প্রস্তাব। শুক্রবার উপরাষ্ট্রপতি তথা রাজ্যসভার চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডুর সঙ্গে দেখা করে প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের অপসারণের দাবিতে তাঁর বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট প্রস্তাব জমা দেয় বিরোধীরা। এই ইমপিচমেন্ট প্রস্তাবে সাক্ষর করেছেন কংগ্রেস সহ সাত বিরোধী দলের রাজ্যসভার ৭১ জন সাংসদ। উপরাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করার পর এদিন এক সাংবাদিক বৈঠকে কংগ্রেস নেতা গুলম নবি আজাদ জানান, তাদের এই প্রস্তাবে সাক্ষরকারী ৭১ জন সাংসদের মধ্যে ৭ জন সাংসদের মেয়াদ সম্প্রতি শেষ হয়েছে। তাই সাক্ষরকারী হিসাবে বর্তমান ৬৪ সাংসদের নামই গণ্য করা হবে। কংগ্রেস ছাড়াও সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে আনা এই ইমপিচমেন্ট প্রস্তাবে সাক্ষর করেছেন বিএসপি, এসপি, এনসিপি, সিপিআই, জেএমএম ও ইন্ডিয়ন ইউনিয়ন মুসলিম লিগের সাংসদরা।
এই ইমপিচমেন্ট প্রস্তাব আনার কারণ হিসাবে কংগ্রেসের তরফে কপিল সিব্বল জানিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্টের অন্যান্য বিচারপতিরাই যখন মনে করছেন দেশের বিচার ব্যবস্থার স্বাধীনতা প্রশ্নের মুখে দাঁড়িয়ে, প্রধান বিচারপতির দফতরের বিরুদ্ধে যখন প্রশ্ন উঠছে তখন চুপ করে বসে থাকা সম্ভব নয়। উল্লেখ্য, কয়েক মাস আগে প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে অসহযোগীতার অভিযোগ এনেছিলেন সুপ্রীম কোর্টের প্রবীণ চার বিচারপতি। কংগ্রেসের নেতৃত্বে বিভিন্ন আঞ্চলিক দল এই ইমপিচমেন্ট প্রস্তাবে সাক্ষর করলেও, এই প্রস্তাবে সাক্ষর করেননি তৃণমূল ও সিপিএম সাংসদরা।

Comments
Loading...