পাকিস্তানে ভারতীয় বিমান হানা, ২০০-৩০০ জঙ্গির মৃত্যু খবর। জরুরি বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী

পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার ঠিক দশ দিন বাদে প্রত্যাঘাত ভারতের। মঙ্গলবার ভোররাত সাড়ে ৩ টে নাগদ ১২ টি মিরাজ ২০০০ যুদ্ধ বিমান পাক সীমান্ত অতিক্রম করে জঙ্গি ঘাঁটিতে অন্তত এক হাজার কিলোগ্রাম বোমা বর্ষণ করে। পাক অধিকৃত কাশ্মীরে একাধিক জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভারতীয় বায়ু সেনা। এর পরই এদিন সকাল থেকে দেশের সবকটি বিমান ঘাঁটিতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। গোটা ঘটনার পর্যালোচনায় মঙ্গলবার সকালে নিজের বাসভবনে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।
সূত্রের খবর, পাক এলাকার বালাকোট, চাকোঠি এবং মুজফরাবাদ এলাকায় একাধিক জইশ ঘাঁটিতে নির্দিষ্টভাবে হামলা চালানো হয়েছে এদিন ভোররাতে। জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংসের উদ্দেশে এই বিমান হানা একশো শতাংশ সফল হয়েছে বলে জানিয়েছে জানিয়েছে ভারতীয় বায়ু সেনা। এর আগে উরি সেনা ঘাঁটিতে জঙ্গি হানার পর ২০১৬ সালের ২৯ শে সেপ্টেম্বর সার্জিকাল স্ট্রাইক করেছিল ভারত।
মঙ্গলবার ভোররাতে ভারত বিমান বাহিনীর এই আচমকা পাক সীমানা পেরিয়ে হানার ঘটনা স্বীকার করেছে পাকিস্তানও। পাকিস্তান জানিয়েছে, ভারতীয় বিমান সীমানা অতিক্রম করেছে, কিন্তু কোনও পরিকাঠামোর ওপর আক্রমণ করা হয়নি। যদিও সূত্রের খবর, এদিনের বিমান হানায় অন্তত ২০০-৩০০ জঙ্গির মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে।

Comments
Loading...