বেসামাল ইনফোসিস, শেয়ার বাজারে পতন অব্যাহত! প্রভাব পড়তে পারে দেশের তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পে

বিখ্যাত তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিসের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজকর্মের অভিযোগে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে আমেরিকার সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন। এবার একাধিক বিনিয়োগকারী সংস্থা ইনফোসিসের বিরুদ্ধে তদন্তে সামিল হল। যার জেরে রীতিমতো সমস্যায় দেশের অন্যতম তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিস।
সমস্যার শুরু বেশ কিছুদিন আগে। ইনফোসিসের বিরুদ্ধে অভিযোগ, মুনাফা বাড়ানোর জন্য অনৈতিক কাজকর্ম করছে তারা।
নাম গোপন করে বেঙ্গালরু ইনফোসিস সংস্থারই কয়েকজন কর্মী ইনফোসিসের সিইও সলিল পারেখ, চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) নীলাঞ্জন রায় সহ শীর্ষ আধিকারিকদের বিরুদ্ধে মুনাফা বাড়ানোর জন্য অনৈতিক কাজকর্মের অভিযোগ আনেন। গত ২০ শে সেপ্টেম্বর এক চিঠিতে এই অভিযোগ এনে তা পাঠানো হয় ইনফোসিস বোর্ডকে। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরেই ইনফোসিসের শেয়ার বাজারে কার্যত ধস নামে। গত সোমবার মার্কিন শেয়ার বাজারে ইনফোসিসের শেয়ার মূল্য ১২ শতাংশ কমে যায়। সাম্প্রতিক সময়ে ইনফোসিসের এমন বাজার ধসের কোনও উদাহরণ নেই।
এদিকে একাধিক মার্কিনি বিনিয়োগকারী সংস্থা ইনফোসিসের বিরুদ্ধে মামলায় অংশ নিয়েছে। ইংরেজি দৈনিক ‘দ্য ইকনমিক টাইমস’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রধান মামলাকারী মার্কিন সংস্থা রোসেন ল ফার্মের তরফে ফিলিপ কিম জানান, একাধিক বিনোয়োগকারী ইনফোসিসের বিরুদ্ধে এই মামলায় অংশ নিতে চাইছে। রোজেন ল ফার্মের দায়ের করা মামলায় ইনফোসিসের প্রাক্তন চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার এম ডি রঙ্গনাথন ও সিইও সলিল পারেখের নাম উল্লেখ করলেও, বর্তমান সিএফও নীলাঞ্জন রায়ের নাম নেই। ইনফোসিসের বিরুদ্ধে প্রথম রোজেন ল ফার্মই মামলা করে। পরে আরও তিনটি ফার্ম এই মামলায় অংশ নেয় বলে খবর। ২০১৮ সালের ৭ ই জুলাই থেকে ২০ শে অক্টোবর, ২০১৯ পর্যন্ত ইনফোসিসের শেয়ার নেওয়া বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যক্তির হয়ে এই মামলায় অংশ নেওয়ার জন্য আবেদন করেছে তারা। ‘দ্য ইকনমিক টাইমস’ সূত্রে খবর, মামলায় যে রঙ্গনাথনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, তিনি গত বছরের অগাস্টে ইস্তফা দিলেও নভেম্বর পর্যন্ত ইনফোসিসের সিএফও পদে ছিলেন। কিন্তু মামলায় কেন বর্তমান সিএফও নীলাঞ্জন রায়ের নাম নেই? ‘দ্য ইকনমিক টাইমস’ এর এই প্রশ্নের জবাবে ফিলিপ কিম জানান, এখন একটা প্রাথমিক হলফনামা দায়ের হয়েছে। চূড়ান্ত হলফনামায় যথাযথভাবে অভিযুক্তদের নাম থাকবে বলে জানান তিনি।

Comments
Loading...