TMC-তে সক্রিয় হতে চেয়ে সুর নরম জিতেন্দ্রর, আসানসোলের নয়া পুরসভা প্রশাসককে দিলেন সহযোগিতার বার্তা

বিজেপি-যোগের জল্পনার মাঝে তৃণমূলেই থাকতে চেয়ে বার্তা জিতেন্দ্র তিওয়ারির

দলবদলের মরসুমে ক’দিন ধরে ব্যাপক চর্চায় উঠে এসেছেন পাণ্ডবেশ্বরের তৃণমূল বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি। শুভেন্দু অধিকারীর দলবদলের প্রেক্ষিতে তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে একে একে আসানসোল পুরনিগমের প্রশাসকের পদ ও পরে দল ছাড়েন তিনি। তারপর জিতেন্দ্রর বিজেপি যোগদান নিয়ে তুঙ্গে ওঠে জল্পনা। কিন্তু আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় আগেভাগেই তাঁর বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করায় ফের তৃণমূলে ফেরেন জিতেন্দ্র। কলকাতায় এসে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করে মমতা ব্যানার্জির প্রতি শ্রদ্ধাও জানান। বলেন, তৃণমূলেই থাকবেন।
কিন্তু ছেড়ে যাওয়া পদে আর জিতেনকে ফেরাল না তৃণমূল। তবে কার্যত একঘরে হওয়া জিতেনও ফের দলে সক্রিয় হতে চেয়ে বার্তা দিলেন। কীভাবে?
শনিবার আসানসোল পুরনিগমের নতুন পুর প্রশাসক পদে অমরনাথ চ্যাটার্জিকে বসানোর কথা ঘোষণা করে পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর। এ নিয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে সোশ্যাল মিডিয়াকে বেছে নেন আসানসোলের পুরসভার পদত্যাগী পুর প্রশাসক।
ফেসবুক পোস্টে আসানসোল পুরসভার নয়া পুর প্রশাসককে অভিনন্দন জানিয়ে জিতেনের নরম সুর, শহরের উন্নয়নে অমরনাথের টিমের প্রতি তাঁর পূর্ণ সহযোগিতা থাকবে।

শুধু তাই নয়, যুব তৃণমূলের সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জির উত্তরবঙ্গ সফরের ভাষণের ভিডিও নিজের ফেসবুক ওয়ালে পোস্ট করেছেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি।যা দেখে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এবার ফের তৃণমূলেই থাকতে চেয়ে শীর্ষ নেতৃত্বকে বার্তা দিতে চাইছেন জিতেন।
প্রসঙ্গত, যে অমরনাথ চ্যাটার্জিকে এদিন আসানসোল পুরনিগমের পুর প্রশাসক করা হল, তিনি ছিলেন বিদায়ী পুরবোর্ডের চেয়ারম্যান। আসানসোল পুরনিগমের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অমরনাথ চ্যাটার্জি আগামী সোমবারই পুর প্রশাসক পদের দায়িত্ব নেবেন বলে খবর। এই প্রেক্ষিতে তাঁকে সবরকম সহযোগিতার আস্থা দিয়ে তৃণমূল নেতৃত্বের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইলেন জিতেন? কিন্তু চাইলেই কি ফিরতে পারবেন? দলে ফিরে এলেও জিতেন্দ্রকে আর পুর প্রশাসক পদে ফেরালেন না ফিরহাদ হাকিমরা। তাই দলে ফিরেও আপাতত ব্রাত্য হয়েই থাকতে হচ্ছে আসানসোলের এই দাপুটে তৃণমূল নেতাকে।

Comments
Loading...