আন্দোলনকারীদের চাপে আরও এক দফা ফি প্রত্যাহার জেএনইউ-এ, খুশি নন পড়ুয়ারা

আন্দোলনকারীদের চাপে জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে আরও এক দফা ফি কমাল উচ্চ পর্যায়ের কমিটি। তাতেও খুশি নন পড়ুয়ারা। তাঁদের দাবি, বর্ধিত ফি সম্পূর্ণ প্রত্যাহার করতে হবে।
জেএনইউ পড়ুয়াদের টানা আন্দোলনের জেরে সোমবার সার্ভিস ও ইউটিলিটি চার্জ ৫০ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গড়ে দেওয়া উচ্চ পর্যায়ের কমিটি। তারা জানায়, মাসিক ইউটিলিটি চার্জ ২ হাজার টাকা থেকে কমিয়ে ১ হাজার টাকা করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে দুঃস্থ ছাত্রদের জন্য ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়। বলা হয়, মাসিক ২ হাজার টাকার জায়গায় বিপিএল ছাত্রছাত্রীদের ইউটিলিটি চার্জ দিতে হবে ৫০০ টাকা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার প্রমোদ কুমার এক বিবৃতিতে জানান,পড়ুয়াদের স্বার্থেই এই তাৎপর্যপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে  কমিটি। এতে সব ছাত্রছাত্রীর স্বার্থ সুরক্ষিত থাকবে। বিবৃতিতে আরও জানানো হয়, পড়ুয়াদের আন্দোলনের জেরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পঠন-পাঠনে প্রচুর ক্ষতি হয়েছে। এরপরেও এই আন্দোলন চলতে থাকলে আখেরে পড়ুয়াদেরই ক্ষতি হবে। পড়ুয়ারা আন্দোলনে এবার ইতি টানার জন্য আবেদন করছে জেএনইউ কর্তৃপক্ষ। যদিও সার্ভিস ও ইউটিলিটি চার্জ ছাড়া অন্যান্য ফি অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।
পড়ুয়াদের আন্দোলনের কাছে নতিস্বীকার করে এর আগে একবার আংশিক ফি প্রত্যাহার করেছিল জেএনইউ কর্তৃপক্ষ। এবার আরও এক দফা ফি প্রত্যাহারেও খুশি নন আন্দোলনকারীরা। প্রসঙ্গত, গত ২২ নভেম্বর জেএনইউ কর্তৃপক্ষের তরফে ফি বৃদ্ধির সমর্থনে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের তহবিলে এখন ৪৫ কোটি টাকার ঘাটতি পড়ে আছে। তাই বর্ধিত ফি মুকুব করা যাবে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্থিক ঘাটতি মেটাতে সোমবার ইউজিসি-র তরফে ৬ কোটি ৪১ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

Comments
Loading...