গডসেকে নিয়ে যা বলেছি তা ঐতিহাসিক সত্য, ফের বললেন কমল হাসান, অভিনেতাকে লক্ষ্য করে জুতো

নাথুরাম গডসেকে নিয়ে তাঁর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে আগের অবস্থানেই অনড় রইলেন অভিনেতা তথা রাজনীতিবিদ কমল হাসান। মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসে, তিনি স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী- কমল হাসানের এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে দায়ের হয় এফআইআর, তাঁকে আদালত জানিয়েছে, চাইলে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের জন্য আবেদন করতে পারেন। যদিও নিজের অবস্থান থেকে সরেননি কমল হাসান। তাঁর কথায়, নাথুরাম গডসেকে নিয়ে তাঁর মন্তব্যের ঐতিহাসিক সত্যতা রয়েছে।
কয়েকদিন আগে আরাভাকুরিচির একটি জনসভায় কমল হাসান বলেছিলেন, স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী একজন হিন্দু। তাঁর এই মন্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়। এআইএডিএমকে-র মুখপত্র ‘নামাধু আম্মা’য় কমল হাসানকে মানসিক রোগগ্রস্ত বলে তাঁর দলকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানানো হয়। নাথুরাম প্রসঙ্গে কমল হাসানের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে তাঁর জিভ টেনে ছিঁড়ে নেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন তামিলনাড়ুর মন্ত্রী কে টি রাজেন্দ্র বালাজি। বুধবার তিরুপ্পারাঙ্কুরদ্রামে জনসভা চলাকালীন জুতো ছুঁড়েও মারা হয় কমল হাসানকে।
স্বরাজ ইন্ডিয়ার সভাপতি যোগেন্দ্র যাদব বা এআইএমআইএম প্রধান আসাউদ্দিন ওয়েইসিরা কমল হাসানের মন্তব্যকে সমর্থন করেছেন। পাশাপাশি বিজেপি সহ কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলি কমল হাসানের মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করে। তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হয় এফআইআর। ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩-এ এবং ২৯৫-এ ধারায় তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া এফআইআর তুলে নেওয়ার জন্য মাদ্রাজ হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন কমল হাসান। যদিও বুধবার আদালত তাঁর আবেদন খারিজ করে জানিয়ে দেয়, তিনি চাইলে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের জন্য আবেদন করতে পারেন।
বুধবার কমল হাসান বলেন, তাঁর বক্তব্যের পুরোটা না শুনেই তাঁর বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন কয়েকজন মানুষ। তিনি বলেন, তাঁর মন্তব্যের ঐতিহাসিক সত্যতা রয়েছে। সত্য সর্বদা তেতো হয় বলেও মন্তব্য করেন এমএনএম প্রধান।

Comments
Loading...