কানাহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে চার্জশিট নিয়ে দিল্লি হাইকোর্টের সমালোচনার মুখে পুলিশ

সরকারের থেকে অনুমতি না পাওয়া সত্ত্বেও কেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র কানাহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে চার্জশিট ফাইল করল দিল্লি পুলিশ? এই প্রশ্ন তুলেই শনিবার দিল্লি পুলিশের তীব্র সমালোচনা করল দিল্লি হাইকোর্ট।
এদিন এই মামলার শুনানি চলার সময় বিচারপতি দিল্লি পুলিশের কাছে প্রশ্ন করেন, আপনাদের কাছে সরকারের আইন বিভাগের প্রয়োজনীয় অনুমতি না থাকা সত্ত্বেও কী করে আপনারা এই চার্জশিট ফাইল করলেন? জবাবে পুলিশের তরফে কোর্টে বলা হয়, আগামী ১০ দিনের মধ্যে তারা প্রয়োজনীয় অনুমতি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে পেয়ে যাবেন। এর প্রেক্ষিতে দিল্লি হাইকোর্ট আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময় দিয়েছে পুলিশকে প্রয়োজনীয় অনুমতি জোগাড়ের জন্য।
উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে সংসদ ভবন হামলায় দোষী সাব্যস্ত আফজল গুরুর ফাঁসির বিরুদ্ধে এক বিক্ষোভ সভায় দেশ বিরোধী স্লোগান দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল কানহাইয়া কুমার, উমর খালিদ, অনির্বাণ ভট্টাচার্য প্রমুখদের বিরুদ্ধে। প্রায় দু’বছর ধরে সেই ঘটনার তদন্ত করে সম্প্রতি দিল্লি পুলিশ তাঁদের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিয়েছে আদালতে। প্রায় ১২০০ পাতার চার্জশিটে কানহাইয়া কুমারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগ এনেছে পুলিশ।
যদিও নিজের বিরুদ্ধে উঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করে কানহাইয়া কুমার ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন, রাজনৈতিক চক্রান্ত করে তাঁর বিরুদ্ধে এই চার্জশিট পেশ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার নিজেদের ব্যর্থতা থেকে নজর ঘোরাতেই এই সব কাণ্ড করছে।

Comments
Loading...