২০১৬ সালে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় (জেএনইউ) ক্যাম্পাসে দেশ বিরোধী সভা করার অভিযোগে প্রাক্তন ছাত্র নেতা কানহাইয়া কুমার, উমর খালিদসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দায়ের হল সোমবার।
পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জাতীয়তা বিরোধী কর্মকাণ্ডে অভিযুক্ত কানহাইয়া কুমার, উমর খালিদ, অনির্বাণ ভট্টাচার্য প্রমুখের বিরুদ্ধে তাদের কাছে যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে।
২০১৬ সালে দিল্লির জেএনইউ ক্যাম্পাসে আফজল গুরুর ফাঁসির বিরোধিতা করে একটি সভা করেন ছাত্র নেতারা। সেখানে দেশ বিরোধী বক্তব্য ও স্লোগান দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় বাম ছাত্র নেতা কানহাইয়া কুমারকে। যদিও উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে পরের মাসেই জেল থেকে ছাড়া পান কানহাইয়া কুমার। এই ঘটনায় দেশজুড়ে প্রবল বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল।
সোমবার তাঁর বিরুদ্ধে পেশ হওয়া ১ হাজার ২০০ পাতার চার্জশিটকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে মন্তব্য করেছেন কানহাইয়া কুমার। তাঁর সহাস্য উক্তি, যদি এই চার্জশিট দাখিলের ঘটনা সত্যি হয়, তবে পুলিশ ও মোদীজীকে ধন্যবাদ। ঠিক লোকসভা নির্বাচনের আগে, ঘটনার তিন বছর পর এই চার্জশিট দায়ের থেকে পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে এটা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তবে বিচার ব্যবস্থার ওপর তিনি আস্থাশীল বলে জানিয়েছেন।
আর এক অভিযুক্ত উমর খালিদ অভিযোগ করেছেন, দেশের আসল সমস্যা থেকে মানুষের নজর ঘোরাতে লোকসভা ভোটের আগে বিজেপি সরকারের এই কৌশল। তবে উমর খালিদ বলেন, কেসে তাঁরা লড়তে প্রস্তুত।
পুলিশের মতে, ওই দিন কানহাইয়া কুমার যে জাতীয়তা বিরোধী স্লোগান দিচ্ছিলেন তা প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য ও একটি ভিডিও থেকে পরিষ্কার। তারা উপযুক্ত তথ্য প্রমাণ নিয়েই চার্জশিট দায়ের করেছেন কানহাইয়া কুমার ও অন্যান্যদের বিরুদ্ধে।

You may also like