কেরল মডেল: ভোটে জয়ী একঝাঁক তরুণ মুখকে প্রশাসনিক দায়িত্ব দিচ্ছে বামেরা

মাত্র ২১ বছর বয়সী আর্যা রাজেন্দ্রনের উপর আস্থা রেখে তাঁকে তিরুবনন্তপুরমের মেয়র করেছে কেরলের বাম শিবির। তবে এখানেই শেষ নয়। তারুণ্যে আস্থা রেখে রেশনা মারিয়াম রায়, সারুথী পি- সহ একঝাঁক অল্প বয়সি মুখকে পুরসভা ও পঞ্চায়েতের শীর্ষ পদে বসানোর সিদ্ধান্ত নিল এলডিএফ জোট।
এবার কেরলের পুর ও পঞ্চায়েত ভোটে বহু তরুণ মুখকে প্রার্থী করেছিল কেরলের বাম জোট। তাঁদের অনেকেই জয়ী হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে একাধিক মুখকে প্রশাসন চালানোর গুরু দায়িত্ব দিচ্ছে বাম জোট।
২১ বছরের কলেজ ছাত্রী আর্যা রাজেন্দ্রনকে দেশের সর্বকনিষ্ঠ মেয়র করেছে বামেরা। এছাড়াও পাথানামথিত্তা জেলার আরুভাপুলম পঞ্চায়েতের প্রধান করা হচ্ছে ২১ বছরের রেশনা মারিয়াম রায়কে। এই বিবিএ ছাত্রীও কেরলের কনিষ্ঠতম পঞ্চায়েত প্রধান হচ্ছেন। সদ্য একুশ পেরনো রেশনা পঞ্চায়েত ভোটে কনিষ্ঠতম প্রার্থী হিসেবে আগেই খবরের শিরোনামে চলে এসেছিলেন। কেরলের পঞ্চায়েত প্রেসিডেন্ট হয়ে রেশনার বক্তব্য, সময়সীমা শেষ হওয়ার ঠিক আগের দিন মনোনয়ন পেশ করেছিলাম। কারণ, ওই দিনই আমি ২১ বছরে পা রাখি। তিনি আরও বলেন, আমাদের পঞ্চায়েতের ১৫টি আসনের মধ্যে ৯টিতে জয়ী হয়েছেন বাম প্রার্থীরা। তার মধ্যে আমিই কনিষ্ঠতম। তবে পঞ্চায়েত চালানোর জন্য দলের বাকি প্রবীণ সদস্যদের মতামত নিয়েই কাজ করব।
ওলাভান্না গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান হিসেবে ২২ বছরের পি সারুথির নাম চূড়ান্ত করেছে এলডিএফ জোট। আইন নিয়ে পড়াশোনা করছেন সারুথি। তাঁর ওলাভাল্লা গ্রাম পঞ্চায়েতের ২৩টি আসনের মধ্যে ১৭টিতেই জয়ী হয় বামেরা। সেমেস্টারের পরীক্ষা শুরুর ঠিল আগের দিনই তাঁকে সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েতের প্রধান হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।
২৩ বছরের আর এক তরুণ নেতা আনাস রোসান স্টেফিকে কেরলের পজুথান্না গ্রাম পঞ্চায়েতের মাথায় বসাচ্ছে বামেরা। কালিকটের প্রভিন্স কলেজ থেকে জুওলজি বিষয় নিয়ে সদ্য বিএসসি পাশ করেছেন স্টেফি। দায়িত্ব পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই পঞ্চায়েতের কাজকর্ম নিয়ে বৈঠক শুরু করে দিয়েছেন তিনি।
কোলাম জেলার আত্তিভা পঞ্চায়েতের প্রধান করা হচ্ছে ২৩ বছরের অমৃতাকে। সোশিওলজি নিয়ে স্নাতক পাশ করা অমৃতার আইটিআই ডিপ্লোমাও রয়েছে। নয়া দায়িত্বের পূর্ণ মর্যাদা রাখতে চান এই তরুণ বাম নেতা।
প্রসঙ্গত, এবার ১৫ হাজার ৯৬২টি গ্রাম পঞ্চায়েতের ভোটে বামেরা জিতেছে ৭ হাজার ২৬২টি আসন। ব্লক পঞ্চায়েতের ২ হাজার ৮০টি সিটের মধ্যে ১ হাজার ২৬৬টি আসনেও জয়ী হয়েছে তারা। এছাড়া জেলা পঞ্চায়েত ভোটে ৩৩১টি আসনের ২১২টি, ছয়টি পুরসভার ৪১৪ আসনের ২০৭টিতে জয় পেয়েছে এলডিএফ জোট। একঝাঁক তরুণ মুখকে প্রার্থী করা এবং তাঁদের উপরেই প্রশাসনিক দায়িত্ব দেওয়া প্রসঙ্গে বাম নেতৃত্বের মন্তব্য, এটাই নয়া ‘কেরল মডেল’।

Comments
Loading...