কেরলে রাহুল ঝড় নেই, ফের প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন না মোদী, হারছেন শশী থারুরঃ কেরলে এশিয়ানেট নিউজের ওপিনিয়ন পোল

প্রথম দফা ভোটের ঠিক আগে কেরলের মনোরমা নিউজ ও মাথরুভূমি নিউজ, দুটি সংবাদমাধ্যমের ওপিনিয়ন পোল ইঙ্গিত দিয়েছিল, সে রাজ্যে ২০ টির মধ্যে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউডিএফ পেতে পারে ১৩ থেকে ১৪ টি আসন, বামেদের আসন নেমে হতে পারে ৩। বিজেপি পেতে পারে ১ টি আসন। এবার কেরলের এশিয়ানেট নিউজের ওপিনিয়ন পোলে উঠে এর বিরোধী তত্ত্ব।
মনোরমা নিউজ ও মাথরুভূমি নিউজের সমোক্ষার পর ওয়েনাড় কেন্দ্র থেকে রাহুল গান্ধীর প্রার্থীপদ ঘোষণা করা হয়েছে। কংগ্রেসের দাবি, দলের সভাপতি প্রার্থী হওয়ায় কেরলে চলছে রাহুল-ঝড়। যার সামনে খড়কুটোর মতো উড়ে যাবে বাম-বিজেপি। কিন্তু রবিবার এশিয়ানেট নিউজ এবং এ-জেড রিসার্চ যৌথভাবে যে ওপিনিয়ন পোল করেছে, তাতে দেখা যাচ্ছে অন্য ছবি।
এশিয়ানেট নিউজের রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে, সমীক্ষায় অংশ নেওয়া বেশিরভাগ মানুষই মনে করছেন, রাহুল-ঝড়ের কোনও অস্তিত্ব নেই কেরলে। তাঁরা বলছেন, এমন কোনও ঝড়ের প্রভাব তাঁরা টের পাচ্ছেন না। সমীক্ষায় অংশ নেওয়া ৬৪ শতাংশ মানুষ মনে করছেন, ওয়েনাড় কেন্দ্র থেকে রাহুল গান্ধীর প্রার্থী হওয়ার কোনও প্রভাবই রাজ্য রাজনীতিতে পড়বে না। এমনকী রাহুলের কেরল থেকে ভোটে লড়ার কোনও প্রয়োজনই ছিল না বলেও মনে করছেন অনেকে।
এশিয়ানেট নিউজ সমীক্ষা চালিয়েছে, কেরলে লোকসভা ভোটে সাবরীমালা ইস্যুর কী প্রভাব পড়তে চলেছে, তা নিয়েও। ফেব্রুয়ারি মাসে করা একই সংস্থার সমীক্ষায় উঠে এসেছিল, ৬৪ শতাংশ মানুষ মনে করছেন, সাবরীমালা এবারের ভোটে অন্যতম প্রধান ইস্যু হয়ে উঠতে চলেছে। সেই সংস্থারই করা এপ্রিলের সার্ভেতে তাতে আমূল বদল এল। রবিবার প্রকাশিত এশিয়ানেট নিউজের সমীক্ষা রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে, এখন ৪৭ শতাংশ মানুষ মনে করছেন সাবরীমালা সবচেয়ে বড় ইস্যু। এই সময়ের মধ্যে মানুষের কাছে বেকারত্ব, উন্নয়ন এবং দুর্নীতি অন্যতম প্রধান ইস্যু হিসেবে উঠে এসেছে। সমীক্ষায় উঠে এসেছে, কেরলের ৬১ শতাংশ মানুষ মনে করেন, নরেন্দ্র মোদী ফের সরকার গঠন করতে পারবেন না। এমনকী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে রাহুল গান্ধী, নরেন্দ্র মোদীর চেয়ে বেশি মানুষের পছন্দ বলেও সমীক্ষায় উঠে এসেছে।
পাশাপাশি, এশিয়ানেট নিউজের সার্ভেতে দেখা যাচ্ছে, কেরলের অন্যতম হাইপ্রোফাইল কেন্দ্র তিরুবনন্তপুরমে এবার কঠিনতম লড়াইয়ের মুখে পড়তে পারেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর। ত্রিমুখী লড়াইয়ে দেখা যাচ্ছে বিজেপি প্রার্থী কে রাজাশেখরণের চেয়ে প্রায় ৬ শতাংশ ভোটে পিছিয়ে পড়ছেন কংগ্রেস প্রার্থী শশী। সমীক্ষায় এই কেন্দ্রে তিন নম্বরে আছেন সিপিএম নেতৃত্বাধীন এলডিএফ প্রার্থী সি দিবাকরণ।
সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, উত্তর এবং দক্ষিণ কেরল থেকে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউডিএফ ভালো ফল করতে চলেছে। মধ্য কেরলে দাপট ধরে রাখছে সিপিএম নেতৃত্বাধীন এলডিএফ। তবে তিরুবনন্তপুরম ছাড়া বিজেপির ভালো ফলের কোনও চিত্র উঠে আসেনি এশিয়ানেট নিউজের সাম্প্রতিকতম সমীক্ষায়।

Comments
Loading...