তোষণের রাজনীতি করছেন মমতা, বেনজির অভিযোগ বিদায়ী রাজ্যপালের, নিজের পদের গরিমা নষ্ট করলেন ত্রিপাঠী, পাল্টা পার্থ

মমতার তোষণ রাজনীতির ফলে রাজ্যের সাম্প্রদায়িক সংস্কৃতি নষ্ট হয়েছে। বিদায় বেলায় বিস্ফোরক কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। শনিবার সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কেশরীনাথ ত্রিপাঠী বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তোষণের রাজনীতির জন্যই বাংলার অবস্থা  খারাপ হয়েছে, নষ্ট হয়েছে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি। তিনি আরও বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর বিভিন্ন প্রকল্প বিরূপ প্রতিক্রিয়া ফেলেছে পশ্চিমবঙ্গে। রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকেই দায়ী করেছেন বিদায়ী রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। শনিবারের সাক্ষাৎকারে তিনি আরও জানান, পশ্চিমবঙ্গের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ হয়েছে এবং এর উন্নতির প্রয়োজন। বিদায়ী রাজ্যপালের এমন বিস্ফোরক মন্তব্যে আলোড়ন তৈরি হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে তৃণমূলের মহাসচিব তথা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে একাধিকবার কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর আলোচনা হয়েছে। তিনি বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বললেও, রাজ্যপাল থাকাকালীন কখনও এ ধরণের মন্তব্য করেননি। তাই রাজ্যপালের কার্যকালের মেয়াদ শেষে কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর এই ধরণের মন্তব্যকে পাল্টা ‘তোষণের রাজনীতি’ বলে কটাক্ষ করেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন বিদায়কালে রাজ্যের শাসক দলের নেত্রী সম্পর্কে এমন অভিযোগ করে আসলে কেন্দ্রীয় সরকারের সুনজরে আসতে চাইছেন কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। তাঁর এই মন্তব্য রাজ্যপালের পদের গরিমাকে নষ্ট করল বলেও মন্তব্য করেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

Comments
Loading...