বিধায়কদের নাম চার্জশিটে দিতে স্পিকারের অনুমতি নিন, CBI’কে নির্দেশ হাইকোর্টের

নারদ মামলা নিয়ে সিবিআই'কে নির্দেশ হাইকোর্টের

বিধানসভার স্পিকারের কাছে অনুমতির জন্য দ্রুত আবেদন করুন। নারদ মামলায় অভিযুক্ত বিধায়কদের বিরুদ্ধে চার্জশিট পেশের জন্য সিবিআইকে এমনই নর্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

নারদ মামলায় অভিযুক্তের তালিকায় রয়েছে বিধায়কদের নাম। সিবিআই’র চার্জশিটে অভিযুক্ত হিসেবে ওই বিধায়কদের নাম রাখার ক্ষেত্রে স্পিকারের অনুমতির প্রয়োজন রয়েছে বলে জানিয়েছে হাইকোর্ট। মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি জানান, নারদ মামলায় চার্জশিট পেশের জন্য বিধানসভার স্পিকারের কাছে দ্রুত অনুমতি চেয়ে আর্জি জানাতে হবে সিবিআইকে।

এই মামলার শুনানিতে অ্যাডিশনাল অ্যাডভোকেট জেনারেল অভ্রতোষ মজুমদার বলেন, এখনও পর্যন্ত বিধায়কদের বিরুদ্ধে চার্জশিট পেশের জন্য বিধানসভার স্পিকারের যে অনুমতি প্রয়োজন, তা নেয়নি সিবিআই। যদিও সিবিআইয়ের তরফে অ্যাডিশনাল সলিসিটর জেনেরাল ওয়াই জে দস্তুর জানান, সাংসদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আগেই লোকসভার স্পিকারের কাছে অনুমতির আবেদন জানানো হয়েছে। একইসঙ্গে বিধানসভার স্পিকারের কাছেও আবেদন করেছে সিবিআই। কিন্তু রাজ্যের তরফে দাবি করা হয়, গত ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত এমন কোনও আবেদন করেনি কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা। যা নিয়ে মামলাকারীর তরফে আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন, এটা সিবিআইয়ের চূড়ান্ত গাফিলতি। গত এক বছর ধরে আমরা শুনে আসছি চার্জশিটের জন্য অনুমতির আবেদন করা হয়েছে। একটা অনুমতি পেতে কতদিন লাগে?

প্রসঙ্গত, স্পিকারের অনুমতি ছাড়াই নারদ মামলায় চার্জশিট পেশ করুক সিবিআই, এমনই আর্জি জানিয়ে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেছিলেন অমিতাভ চক্রবর্তী নামে এক কংগ্রেস নেতা। তাঁর কথায়, যেহেতু হাইকোর্টের নির্দেশে এই মামলায় তদন্ত চলছে, চার্জশিট পেশের জন্য স্পিকারের অনুমতির কি আদৌও প্রয়োজন আছে? তবে মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্ট সিবিআইকে নির্দেশ দেয় বিধানসভার অধ্যক্ষের কাছে দ্রুত অনুমতির জন্য আবেদন করতে হবে।

Comments
Loading...