সেই সংস্থার ডিরেক্টরের বাড়িতে হানা কলকাতা পুলিশের, যার সঙ্গে আর্থিক লেনদেন হয়েছে নাগেশ্বর রাওয়ের পরিবারের

রাজীব কুমার শিলংয়ে সিবিআই-এর মুখোমুখি হওয়ার ঠিক আগের দিন সেই আর্থিক সংস্থার ডিরেক্টরের বাড়িতে অভিযান চালালো কলকাতা পুলিশ যে সংস্থার সঙ্গে ‘সম্পর্ক’ রয়েছে সিবিআই-এর প্রাক্তন অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান নাগেশ্বর রাওয়ের। অ্যাঞ্জেলা মার্কেন্টাইলস প্রাইভেট লিমিটেড (AMPL) নামে এই সংস্থার ক্লাইভ রো’এর অফিসে কয়েক সপ্তাহ আগে তল্লাশি চালিয়েছিল কলকাতা পুলিশ। কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, এই সংস্থা থেকে আর্থিকভাবে লাভবান হয়েছেন নাগেশ্বর রাওয়ের স্ত্রী এবং মেয়ে। কিন্তু কেন তাঁরা এই নন ব্যাঙ্কিং ফিনান্সিয়াল কোম্পানি থেকে নিয়মিত বেতন পেতেন তা স্পষ্ট নয়। শুক্রবার এই সংস্থার ডিরেক্টর প্রবীণ আগরওয়ালের সল্টলেকের বাড়িতে হানা দিল পুলিশ।
গত ৩ রা ফেব্রুয়ারি কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে বেনজিরভাবে সিবিআই-এর হানার পরই thebengalstory.com এই AMPL এর অফিসে কয়েক সপ্তাহ আগে কলকাতা পুলিশের হানা দেওয়ার খবর প্রকাশিত হয়। তখনই প্রশ্ন উঠেছিল, যে সংস্থা থেকে সিবিআই-এর তৎকালীন অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান নাগেশ্বর রাওয়ের স্ত্রী এবং মেয়ে নিয়মিত বেতন নিয়েছেন, সেখানে কলকাতা পুলিশের হানার পরই কি সিবিআই অতি তৎপর হয়ে উঠল? সেই কারণেই কি অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান হিসেবে নাগেশ্বর রাওয়ের শেষ দিনে সিবিআই-এর এই তৎপরতা? প্রসঙ্গত, তার পরদিন ৪ তারিখ সিবিআই-এর ডিরেক্টর হন ঋষিকুমার শুক্লা।


পড়ুনঃ নাগেশ্বর রাওয়ের স্ত্রী ও মেয়ের সঙ্গে আর্থিক লেনদেন রয়েছে এমন সংস্থায় সম্প্রতি তল্লাশি কলকাতা পুলিশের, সেই কারণেই কি সিবিআই-এর এই তৎপরতা? প্রশ্ন


কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, AMPL এবং নাগেশ্বর রাওয়ের স্ত্রী এম সন্ধ্যার মধ্যে বেশ কিছু আর্থিক লেনদেন হয়েছে। ২০১১ এর মার্চ মাসে নাগেশ্বর রাওয়ের স্ত্রী সন্ধ্যা এই সংস্থা থেকে ২৫ লক্ষ টাকা নেন। এছাড়াও ২০১২ অর্থবর্ষের শেষ থেকে ২০১৪ র মধ্যে তিন দফায় এম সন্ধ্যা ১.১৪ কোটি টাকার লোন দেন AMPL কে। ২০১২ সালে দেওয়া হয় ৩৫.৫৬ লক্ষ টাকা এবং ২০১৩ ও ২০১৪ সালে দেওয়া হয় ৪০.২৯ লক্ষ টাকা করে।
রাও অবশ্য এর আগে তাঁর স্ত্রীর এই আর্থিক লেনদেনের বিষয়ে সাফাই দিয়ে এতে কিছু বেনিয়ম হয়নি বলেই জানিয়েছিলেন।
কিন্তু কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, তারা এই সংস্থার দফতরে হানা দিয়ে এমন কিছু তথ্য পেয়েছেন, তাতে দেখা যাচ্ছে রাওয়ের কন্যা ওই সংস্থার থেকে বেতন বাবদ প্রচুর অর্থ পেয়েছেন।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার এই অভিযানেও সংস্থার ডিরেক্টর প্রবীণ আগরওয়ালের সল্টলেকের বাড়িতে বেশ কিছু নথি মিলেছে।

Comments
Loading...