লাভপুরের ‘অপহৃত’ তরুণী উদ্ধার ডালখোলা থেকে, গ্রেফতার বিজেপি নেতা বাবা

‘সাজানো’ অপহরণের ঘটনায় গ্রেফতার হলেন বীরভূমের লাভপুরের বিজেপি নেতা। গত ১৪ ই ফেব্রুয়ারি বিজেপি নেতা সুপ্রভাত বটব্যালের কন্যা প্রথমা বটব্যাল নিখোঁজ হন। ঘটনার তিনদিনের মাথায়, রবিবার উত্তরবঙ্গের ডালখোলা স্টেশন থেকে প্রথমা বটব্যালকে উদ্ধার করে পুলিশ। অপহৃতাকে উদ্ধারের পাশাপাশি দুই দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
তাদের জেরা করে চাঞ্চল্যকর তথ্য জানতে পারে পুলিশ। ধৃতেরা জানায় বিজেপি নেতা সুপ্রভাত বটব্যালের পূর্ব পরিচিত তারা। পুলিশ জানিয়েছে, গোটা ঘটনাই সাজানো ও পূর্ব পরিকল্পিত। রাজনৈতিক উদ্দেশে ছক কষে মেয়েকে অপহরণ করান ওই বিজেপি নেতা। বোলপুরের পুলিশ সুপার তন্ময় সরকারের দাবি,  ‘সাজানো’ অপহরণের কথা নিজেও কবুল করে নিয়েছেন বিজেপি নেতা সুপ্রভাত বটব্যাল। অন্য একটি মামলায় পুলিশ তাঁকে খুঁজছিল। তা থেকে বাঁচতেই অপহরণের গল্প ফাঁদা হয় বলে মনে করছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, ধৃতদের পাশাপাশি এলাকায় হিংসা ছড়ানোয় অভিযোগে বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী-সমর্থকের বিরুদ্ধে মামলা শুরু হয়েছে।
বৃহস্পতিবার রাতে বীরভূমের লাভপুরের বাবুপাড়ায় বিজেপির জেলা কমিটির সদস্য সুপ্রভাত বটব্যালের মেয়েকে আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে অপহরণের অভিযোগ ওঠে তিন দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে। ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে লাভপুর। অভিযোগের আঙুল ওঠে তৃণমূলের দিকে। যদিও, তৃণমূল সেই অভিযোগ প্রথম থেকেই অস্বীকার করে এসেছে। তাদের দাবি, রাজনৈতিক সুবিধা আদায় করতেই মেয়েকে অপহরণের গল্প ফেঁদেছিলেন ধৃত বিজেপি নেতা।

Comments
Loading...