ভেনেজুয়েলায় হস্তক্ষেপ করে রক্তে হাত রাঙাতে চাইছেন ট্রাম্প, আমেরিকাকে হুঁশিয়ারি মাদুরোর

রক্তে নিজের হাত রাঙাতে চাইছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, এমন ভাষাতেই মার্কিন প্রেসিডেন্টকে আক্রমণ করলেন ভেনেজুয়েলার রাষ্ট্রপতি নিকোলাস মাদুরো।
ভেনেজুয়েলার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে মার্কিন মিলিটারি শাসনই বিকল্প রাস্তা বলে কয়েক দিন আগে মন্তব্য করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আমেরিকার এই অযাচিত হস্তক্ষেপ মানতে নারাজ মাদুরো। ট্রাম্পের এই ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে স্পেনের এক টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মাদুরো বলেন, তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্টকে সামনে পেলে তাঁকে সাবধান করতেন। বলতেন, ‘থামুন ডোনাল্ড ট্রাম্প, আর নয়। আপনি ভুল করছেন। রক্তে হাত রাঙবে আপনার এবং যখন ক্ষমতা ছাড়বেন তখনও সেই রক্তের দাগ হাতে লেগে থাকবে।’
মাদুরো ওই সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলেন, তাঁর দেশের অভ্যন্তরীণ সংকটে প্রতিবেশী রাষ্ট্রের হস্তক্ষেপ কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না। ট্রাম্পকে সতর্ক করে তাঁর বার্তা, যদি এই আগ্রাসন ও অযাচিত হস্তক্ষেপ চলতে থাকে তাহলে ভিয়েতনামের মতো পরিস্থিতি তৈরি হবে। ট্রাম্প প্রশাসন লাতিন আমেরিকায় ভিয়েতনাম যুদ্ধের পুনরাবৃত্তি করতে চাইছে বলে অভিযোগ করেন মাদুরো। তাই আমেরিকার প্রেসিডেন্টের উদ্দেশে তাঁর বার্তা, ‘আসুন পরস্পরকে শ্রদ্ধা করি।’
প্রসঙ্গত, ভেনেজুয়েলায় রাষ্ট্রপতি নিকোলাস মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে সে দেশের স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গাইডোর পাশে দাঁড়িয়েছে আমেরিকা। প্রতিবেশী একাধিক রাষ্ট্র আমেরিকার পাশে দাঁড়িয়ে ভেনেজুয়েলায় ফের নির্বাচনের দাবি করেছে। সেই সঙ্গে অন্তর্বতীকালীন প্রেসিডেন্ট হিসেবে হুয়ান গুইডোকে মান্যতা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে তারা। সোমবার অস্ট্রিয়া, চেক প্রজাতন্ত্র, ডেনমার্ক, জার্মানি, ইস্টোনিয়া, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, লাতভিয়াসহ মোট সহ ১৬ টি দেশ আমেরিকার পাশে দাঁড়িয়ে হুয়ান গুইডোকে প্রেসিডেন্টের মান্যতা দিয়েছে। এই অবস্থায় মাদুরোও প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলির আগ্রাসনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছেন।

Comments
Loading...