মালিয়াকে দেশে ফেরানোর উদ্যোগ নিল ব্রিটেন, মেহুল চোকসির ভারতের নাগরিকত্ব ফেরানোর আবেদন খারিজ

৯ হাজার কোটি টাকার ব্যাঙ্ক প্রতারণায় অভিযুক্ত, শিল্পপতি বিজয় মালিয়ার ভারতে প্রত্যর্পণের ক্ষেত্রে উদ্যোগ নিল ব্রিটেন।
সোমবার ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্রসচিব সাজিদ জাভেদ এই কথা জানিয়েছেন। ভারতের আবেদন মেনেই মালিয়াকে ফেরানোর নোটিসে সই করা হয়েছে বলে জানান ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্র সচিব। যদিও, এখনও প্রত্যার্পণের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের সময় আসেনি। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মামলা করার জন্য মালিয়ার হাতে ১৪ দিন সময় রয়েছে। ৬২ বছর বয়সী, কিংফিশার সংস্থার মালিক বিজয় মালিয়া প্রত্যর্পণের সিদ্ধান্তটি স্থগিত রাখার জন্য গত ডিসেম্বর মাসে আবেদন করেছিলেন আদালতে। সেই সিদ্ধান্ত খারিজ করে দিয়েছিল আদালত।
ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ৩ ফেব্রুয়ারি সমস্ত দিক খতিয়ে দেখে বিজয় মালিয়াকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার নির্দেশে সই করেছেন সেক্রেটারি অব স্টেট। সবদিক খতিয়ে দেখে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভারতে বিজয় মালিয়ার নামে কয়েক হাজার কোটি টাকার অর্থ জালিয়াতির মামলা রয়েছে ।
এই খবরে লোকসভা নির্বাচনের আগে মোদী সরকারকে অনেকটাই স্বস্তি দিল বলে মনে করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি ট্যুইটে জানান, বিজয় মালিয়াকে ফেরানোর ব্যাপারে আরও এক ধাপ এগোল মোদী সরকার।
অন্যদিকে, ১৩ হাজার কোটি টাকা ব্যাঙ্ক প্রতারণায় অভিযুক্ত আর এক শিল্পপতি মেহুল চোকসি অ্যান্টিগুয়া ও বারবুডার নাগরিকত্ব পেলেও, তাঁর ভারতের নাগরিকত্ব প্রত্যাহার করা হয়নি। তাই ভারতে তাঁকে প্রত্যর্পণের পথ খোলা রয়েছে। গুয়ানার ভারতীয় হাই কমিশনার ভেঙ্কটাচালাম মহালিঙ্গম এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, মেহুল চোকসি ভারতীয় পাসপোর্ট প্রত্যাহার করলেই এমন নয় যে তাঁর প্রত্যাহার মেনে নেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, কোনও অপরাধ করে কেউ যদি ভাবেন আর একটা দেশে পালিয়ে গিয়ে আশ্রয় নেবেন, আর তাঁর সেই নাগরিকত্ব মেনে নেওয়া হবে তাহলে ভুল ভেবেছেন। মহালিঙ্গম জানান, যদি উভয় দেশ মেহুল চোকসিকে ভারতীয় নাগরিক হিসেবে মেনে নিতে সম্মত হয়, তবে কমনওয়েলথ চুক্তি অনুযায়ী অ্যান্টিগুয়া সরকার তাঁকে ফেরানোর ব্যাপারে উদ্যোগ নেবে।

Comments
Loading...