অধীরের বিরুদ্ধে জোড়া খুনের অভিযোগ মমতার, মুর্শিদাবাদের প্রচারে ফের আনলেন কংগ্রেস-সিপিএম-আরএসএসের আঁতাতের তত্ত্ব

‘আমি কারও ব্যক্তিগত বিষয় প্রচারে আনতে চাই না, কিন্তু এখানকার স্বঘোষিত বড় নেতার জোড়া খুনের অভিযোগ আমার জানা আছে। দয়া করে প্যান্ডোরা বাক্স খুলতে বলবেন না’, মুর্শিদাবাদে দাঁড়িয়ে এভাবেই নাম না করে অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে তীব্র আক্রমণ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার মুর্শিদাবাদের বেলডাঙা ও ভগবানগোলায় দুটি নির্বাচনী সভা করেন তৃণমূল নেত্রী। ফের অভিযোগ আনেন কংগ্রেস এবং আরএসএসের মধ্যে আঁতাতের।
গত সপ্তাহেই উত্তর দিনাজপুরে একাধিক জনসভায় মমতা অভিযোগ করেছিলেন, বহরমপুরে অধীর চৌধুরী এবং জঙ্গিপুর কেন্দ্রে প্রণব পুত্র অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়কে সাহায্য করছে আরএসএস। এদিন সেই প্রসঙ্গ ফের এনে তৃণমূল নেত্রী চ্যালেঞ্জ করে বলেন, সিপিএম, কংগ্রেস, বিজেপি এক হয়ে লড়ছে মুর্শিদাবাদে। তিনি সাধারণ মানুষের কাছে আহ্বান জানান, বিজেপিকে হারাতে তৃণমুলকে ভোট দিতে।
সোমবার বহরমপুর লোকসভার তৃণমূল প্রার্থী অপূর্ব সরকারের সমর্থনে বেলডাঙা ও মুর্শিদাবাদ লোকসভায় আবু তাহেরে সমর্থনে ভগবানগোলায় সভা করেন তৃণমূল নেত্রী। দুটি সভা থেকে সিপিএম-বিজেপি-কংগ্রেসকে এক পঙক্তিতে বসিয়ে নজিরবিহীন আক্রমণ করেন তিনি। সোমবার অধীরের গড়ে দাঁড়িয়ে মমতার ঘোষণা, বিজেপির কাছে বিকিয়ে গিয়েছে সিপিএম আর কংগ্রেস। বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদকে তীব্র কটাক্ষ হেনে মমতা বললেন, বাম-রাম আর মাঝখানে অধীর রাজ। প্রতিদিন আরএসের সঙ্গে আলোচনা হয় কংগ্রেস সাংসদের, অভিযোগ মমতার। তিনি বলেন, সিপিএম-বিজেপির কাছে মাথা বিকিয়ে দেননি কংগ্রেস ত্যাগী তৃণমূল প্রার্থী অপূর্ব সরকার।
কংগ্রেস সাংসদকে বিঁধে তৃণমূল নেত্রীর প্রশ্ন, বহরমপুরের সাংসদ এতই যদি ক্ষমতা রাখেন, তবে বিজেপি-সিপিএমের সঙ্গে আঁতাত রাখেন কেন? বহরমপুর কেন্দ্রের ভোটারদের কাছে মমতার আবেদন, বিরোধীদের ‘গট আপ ম্যাচে’ ভুলে গিয়ে যেন ভোট ভাগাভাগি না হয়ে যায়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, যতদিন বেঁচে থাকব ফ্যাসিস্ত শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করব।
এবার দিল্লিতে বিজেপিকে সরিয়ে আঞ্চলিক দলগুলির সরকার হবে বলে এদিন ফের বলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, দেশে নতুন সরকার গড়ায় উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেবে তৃণমূল।

Comments
Loading...