বিজেপি জেতার পর থেকেই আসানসোলে দাঙ্গার রমরমা, জনসভা থেকে তীব্র আক্রমণ মমতার, দিলেন, বাবুল হঠাও ডাক

আগে এখানে দাঙ্গা হত না, বিজেপি সাংসদের সময় থেকে থেকে দাঙ্গাবাজি আর অশান্তি বেড়েছে, রানিগঞ্জের সভা থেকে নাম না করে বাবুল সুপ্রিয়কে আক্রমণ শানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

২০১৪ সালে বাংলায় জনসভা করতে এসে নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন, ‘মুঝে বাবুল চাহিয়ে’। আসানসোলে জিতেছিলেন বিজেপির বাবুল সুপ্রিয়ই। আর তার ঠিক ৫ বছর বাদে সেই আসানসোলেই জনসভা থেকে বাবুল হঠানোর ডাক দিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শুক্রবার রানিগঞ্জে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে একযোগে মোদী ও স্থানীয় বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে আক্রমণ করেন মমতা। ক’দিন আগে এই আসানসোলে বাবুল সুপ্রিয়র সমর্থনে সভা করেছিলেন মোদী। সভা থেকে তিনি কটাক্ষ করেছিলেন, মমতার রাজ্যের উন্নয়ন দাঁড়িয়ে আছে কয়লা আর বালি মাফিয়ার উপর ভর করে। শুক্রবার রানিগঞ্জের সভা থেকে তার জবাব দিলেন তৃণমূল নেত্রী। মমতার পাল্টা কটাক্ষ, ‘চোরের মায়ের বড় গলা’। মমতার অভিযোগ, বিজেপিই কয়লা খাদানে মাফিয়ারাজ চালাচ্ছে। ঝাড়খণ্ড থেকে টাকা আর অস্ত্র এনে আসানসোলে অশান্তি তৈরি করা হচ্ছে বলে বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন মমতা। তাঁর কটাক্ষ, আগে যে আরএসএস হাফ প্যান্ট পরে দৌড়োত, এখন তারাই টাকা বিলিয়ে ভোট কিনতে চাইছে। রানিগঞ্জ থেকে আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে তীব্র আক্রমণ করে মমতার দাবি, আসানসোলে আগে দাঙ্গা হত না। বিজেপি সাংসদ কেবল দাঙ্গা আর ড্রামা করে বেড়ান বলেও কটাক্ষ করেন তৃণমূল নেত্রী। তাঁর অভিযোগ, বাবুল সুপ্রিয় মানুষের জন্য একটিও কাজ করেননি, শুধু নাটক করেই তাঁর সময় কাটে বলেও কটাক্ষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। পাশাপাশি  মুনমুন সেনকে বাঁকুড়া থেকে আসানসোলের প্রার্থী করার বিষয়ে তৃণমূল নেত্রী বলেন, মুনমুন বাংলার সেন্টিমেন্ট জানে। মুনমুন সেনের ভূয়সী প্রশংসা করে মমতা বলেন, একটি ‘ছেলে’কে হারাতেই মুনমুনকে প্রার্থী করেছেন তিনি। বিজেপি সাংসদকে কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, তিনি বাংলার সংস্কৃতি জানেন না, খালি গালিগালাজ আর অশান্তি করে যাচ্ছেন আসানসোলে। আসানসোলবাসীর কাছে মমতার আবেদন, দয়া করে বাবুলকে হঠান।

Comments
Loading...