শিল্পপতিদের প্রবল চাপের মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে, সিসিডি কর্ণধারের অস্বাভাবিক মৃত্যুর পর ট্যুইট মুখ্যমন্ত্রীর

সিসিডি কর্ণধার জি ভি সিদ্ধার্থের মৃত্যুর পর দুঃখপ্রকাশ করে ট্যুইট মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ঘটনাকে অত্যন্ত বেদনাদায়ক এবং দুঃখজনক বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। পরিবারকে জানিয়েছেন সমবেদনা।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছেন, জি ভি সিদ্ধার্থের শেষ চিঠি থেকে জানতে পারছি, তাঁকে বিভিন্ন এজেন্সি প্রবল চাপ এবং হেনস্থার মুখে ফেলছিল। এই কারণেই শান্তিপূর্ণভাবে তিনি ব্যবসা চালাতে পারছিলেন না।

এরপর মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, আমি বিভিন্ন সূত্র থেকে খবর পেয়েছি, দেশের সেরা শিল্পপতিদের প্রবল চাপের মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে। পরিস্থিতি এমনই যে কয়েকজন ইতিমধ্যেই দেশ ছেড়ে চলে গিয়েছেন। বাকিরা তেমনই চিন্তাভাবনা করতে বাধ্য হচ্ছেন।

প্রত্যেকটি বিরোধী রাজনৈতিক দল ঘোড়া কেনাবেচা এবং রাজনৈতিক উদ্দেশে হেনস্থার শিকার, লিখেছেন মমতা। একদিকে দেশের বৃদ্ধি যেখানে শেষ ৫ বছরে সর্বনিম্ন স্তরে এসে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে কর্মসংস্থানের হার গত ৪৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম। এই পরিস্থিতিতে অর্ডিনান্স ফ্যাক্টরি থেকে বিএসএনএল, এয়ার ইন্ডিয়া থেকে রেলওয়ে, চিত্তরঞ্জন লোকোমোটিভ থেকে দুর্গাপুরের অ্যালয় স্টিল প্ল্যান্ট, সবকিছু বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ার যেন হিড়িক লেগে গিয়েছে, অভিযোগ মমতার। সামগ্রিকভাবে দেশের অর্থনীতি বিপদের মুখে, যার সবচেয়ে বেশি প্রভাব এসে পড়ছে সাধারণ মানুষের গায়ে, লিখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কেন্দ্রের মোদী সরকারকে তাঁর আবেদন, আপনারা নির্বাচিত হয়ে এসেছেন যখন, তখন শান্তিপূর্ণভাবে কাজ করে মানুষকে এটা বোঝাতে হবে, রাজনৈতিক উদ্দেশে হেনস্থা করা আপনাদের উদ্দেশ্য নয়। না হলে এটা আমাদের দেশের ভবিষ্যতকে ধ্বংস করে দেবে।

Comments
Loading...