ভোট এলেই রামের কথা মনে পড়ে, বাগদার সভা থেকে মোদীকে তীব্র কটাক্ষ মমতার, অভিযোগ কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়েও

কেন্দ্রীয় বাহিনী বুথে ঢুকে গুলি চালানোর সাহস পায় কোথা থেকে? সোমবার বাগদার সভা থেকে তৃণমূল নেত্রীর অভিযোগ, বিজেপিকে ভোট দিতে ভোটারদের প্রভাবিত করছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। এভাবে ভোট লুঠ করে তৃণমূলকে হারানো যাবে না বলে হুঁশিয়ারি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

বোলপুরের দুবরাজপুরে একটি বুথে তৃণমূল ও বিজেপির বচসা শুরু হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের বাইরে চলে যাচ্ছে দেখে শূন্যে গুলি ছোঁড়েন কেন্দ্রীয় বাহিনীর এক জওয়ান। এর জেরে বেশ কিছুক্ষণ বন্ধ থাকে ভোট।
কেন্দ্রীয় বাহিনী ভোটারদের বিজেপিকে ভোট দিতে বলছে বলেও এদিন অভিযোগ করেন মমতা। কেন্দ্রীয় বাহিনী বুথের ভেতরে ঢুকতে পারে না, দাবি করে মমতার কটাক্ষ, বিজেপির মগজে ‘মরুভূমি’। মমতা বলেন, ভোট এলেই মোদীবাবুর মনে পড়ে রামবাবুকে। গত ৫ বছরেও রামমন্দির তৈরি করতে পারেনি বিজেপি, এখন রাম-সীতা করে ভোট চাইতে হচ্ছে, কটাক্ষ মমতার। তাঁর অভিযোগ, ভোট আসতেই টাকার বাক্স নিয়ে বেরিয়ে পড়েছে বিজেপি। তৃণমূল নেত্রীর হুঁশিয়ারি, আগামী দিনে এই টাকার হিসেব দিতে হবে নরেন্দ্র মোদীকে। ভোটের আগে হিন্দু-মুসলিম, আদিবাসী বা দলিত, মানুষে মানুষে বিভেদ তৈরি করে ভোট জিততে চাইছে মোদীর বিজেপি বলে অভিযোগ করেন তিনি।
বনগাঁর তৃণমূল প্রার্থী মমতা ঠাকুরের সমর্থনে বাগদার সভা থেকে মমতা বলেন, গণতন্ত্র রক্ষা করতে হবে। তাই বিজেপিকে সরাতে একটিও ভোট নষ্ট করবেন না, আবেদন মমতার। পাশাপাশি, বামেদের কটাক্ষ করে মমতা বলেন, যে সিপিএম আগে আদর্শের কথা বলত, এখন তারা বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছে, ঈশ্বর ওদের মঙ্গল করুন।

Comments
Loading...